মেইন ম্যেনু

সন্তান হবার পর কর্মজীবী মা যেভাবে ফিরে আসতে পারেন স্বাভাবিক জীবনে

কর্মজীবি মহিলাদের মাতৃত্ব কালীন ছুটির শেষের দিকে খুব দুশ্চিন্তায় ভুগতে দেখা যায় এই ভেবে যে, বাচ্চার জন্য রাতে ঠিক মত না ঘুমিয়েও ভোর ৬টায় উঠে অফিসের জন্য তৈরি হওয়া কীভাবে সম্ভব হবে? আবার সারাদিন বাচ্চার কাছ থেকে দূরে থাকতে হবে এই ভেবেও কষ্ট ও অপরাধ বোধে ভোগেন অনেকেই। কিন্তু বাস্তবতার পরিপ্রেক্ষিতে ছুটি শেষে ঠিকই অফিসে যেতে হয়। আসুন যেনে নেই কিছু টিপস যা আপনার জীবনকে সহজ করবে।

১। নতুন রুটিন প্র্যাকটিস করুন

অফিসে যাওয়া শুরু করার কয়েকদিন আগে থেকেই অফিসে গেলে আপনার প্রতিদিনের রুটিনে যে পরিবর্তন হবে সেইভাবে প্র্যাকটিস শুরু করুন। অর্থাৎ সকালে ঘুম থেকে উঠুন, বাচ্চাকে নিজের থেকে দূরে রাখুন। আপনি বাচ্চাকে যার কাছে রেখে যাবেন তার কাছে বাচ্চাকে দিন এবং অফিসের সময়টুকু তার কাছে রাখুন। এভাবে প্র্যাকটিস করলে অফিসে যাওয়া শুরু করলে তেমন কষ্ট হবেনা।

২। বিশ্রাম নিন

কর্মক্ষেত্রে যোগদানের জন্য আপনাকে যেহেতু অনেক সকালে বিছানা ছাড়তে হবে তাই তাড়াতাড়ি ঘুমাতে হবে ।তাই সব কাজ গুছিয়ে নিয়ে রাত ৯টার মধ্যে শুয়ে পড়ুন। রাতে বাচ্চার জন্য জাগতে হলেও সকালে উঠার আগে আবার ঘুমিয়ে নিতে পারবেন। পর্যাপ্ত ঘুম না হলে অফিসে আপনি ক্লান্ত বোধ করবেন। নিজের বিশ্রামের সুযোগ করে নিন।

৩। ধৈর্য ধারণ করুন

দীর্ঘ বিরতির পর অফিসে আপনার দায়িত্ব ও কাজের ভিতর পরিবর্তন আসতে পারে।এর মাঝে সহকর্মীরও পরিবর্তন হতে পারে। এই পরিবর্তন গুলোর সাথে নিজেকে মানিয়ে নিতে হবে, এর জন্য ধৈর্য ধরুন। সময়ের সাথে সাথে সব কিছু আপনার আয়ত্তে চলে আসবে।

৪। বড় কোন সিদ্ধান্ত নেবেন না

সব কিছু সামলাতে যখন হিমশিম খাবেন তখন হয়তো বড় কোন সিদ্ধান্ত নিয়ে নিতে উদ্যত হবেন, যেমন- চাকরি ছেড়ে দেয়া। এই রকমের কোন সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে পুনরায় ভাবুন। নিজের মনের কথা বোঝার চেষ্টা করুন তারপর সিদ্ধান্ত নিন।

৫। নিজের প্রতি সহানুভূতিশীল হোন

অন্যের সাথে নিজেকে তুলনা করবেননা। অন্য কর্মজীবী মায়েরা সব কিছু সুন্দর ভাবে সামলাচ্ছে কিন্তু আপনি পারছেন না এটা ভেবে হতাশ হবেন না। প্রতিদিন নিজের ১টি ভালো গুন চিহ্নিত করুন। নিজের প্রতি সহানুভূতিশীল হোন।

টিপস:

রাতেই সব কিছু গুছিয়ে রাখুন।
যার কাছে বাচ্চাকে রেখে যাচ্ছেন তাকে সব কিছু শিখিয়ে দিন (কীভাবে বাচ্চার ন্যাপি চেঞ্জ করবে, কীভাবে খাওয়াবে ইত্যাদি)।
অফিসের সকলকে বাচ্চার ছবি দেখিয়ে বেড়াবেন না।
যদি বেবি সিটার এর কাছে বাচ্চা রেখে যেতে হয় তাহলে তার পরিচয় জানুন ভালো করে।
ফোনে বাচ্চার খবর নিন।
সারাক্ষণ বাচ্চার চিন্তা না করে লাঞ্চ ব্র্যাকে সহকর্মীদের সাথে কথা বলুন। আস্তে আস্তে আপনি আপনার উভয় সত্ত্বার সমন্বয় করতে পারবেন।

লিখেছেন-

সাবেরা খাতুন






মন্তব্য চালু নেই