মেইন ম্যেনু

সন্ত্রাসবাদ দমনে সরকারকে ভারতের সমর্থন

সন্ত্রাসবাদ ও উগ্রবাদ দমনে সরকারের প্রতি ভারত সরকারের জোর সমর্থনের কথা জানিয়েছেন সফররত ভারতের পররাষ্ট্র সচিব সুব্রামানিয়াম জয়শঙ্কর।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হকের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বৈঠক শেষে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন ভারতীয় পররাষ্ট্র সচিব।

জয়শঙ্কর বলেন, বাংলাদেশ সরকারের প্রতি ভারত সরকারের জোর সমর্থনের কথা আমি জানিয়েছি। প্রতিবেশি হিসেবে এটি (সন্ত্রাসবাদ) আমাদের কাছে উদ্বেগের। এই বিষয়ে দুইপক্ষই অত্যন্ত ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করছি।

বৈঠকে ভারত থেকে বাংলাদেশে আরও বিদ্যুৎ রফতানির বিষয়ে আলোচনাসহ জ্বালানি সহযোগিতা, কোস্টাল শিপিং, বাংলাদেশে বিনিয়োগকৃত ভারতীয় বেসরকারি বিদ্যুৎ প্রকল্প, ঋণ সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

এ সময় জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক বেশকিছু বিষয় নিয়েও আলোচনার কথা বলেছেন জয়শঙ্কর। তবে সেই বিষয়গুলো কী তা উল্লেখ করেননি তিনি।

গত কিছুদিনে প্রায় সব ক্ষেত্রেই দুই দেশের সম্পর্ক উল্লেখযোগ্য মাত্রায় এগিয়ে চলার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ সরকার ও পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হককে ধন্যবাদ জানান জয়শঙ্কর।

বৈঠক শেষে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব সাংবাদিকদের আরও বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী গত বছর বাংলাদেশ সফরের সময় বেশ কিছু বিষয়ে আলোচনা ও চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। সেই বিষয়গুলোর কতটুকু অগ্রগতি হয়েছে, কতটুকু হয়নি সে বিষয়গুলো আলোচনাই আমার সফরের মূল উদ্দেশ্য।

তবে, সাংবাদিকদের সঙ্গে নিজের কথা শেষে কোনো প্রশ্ন নেননি জয়শঙ্কর।

বাংলাদেশ-ভারতের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক অত্যন্ত ইতিবাচক একটি জায়গায় এসেছে উল্লেখ করে জয়শঙ্কর বলেন, সম্প্রতি বাংলাদেশ থেকে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট ভারতে রফতানি এবং ভারতের পালাটানা থেকে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ আমদানির সময় দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে যোগাযোগ করে উদ্বোধন করেছেন। এটা দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ইতিবাচক দিক।

দুই দিনের বাংলাদেশ সফরকে ‘সার্বিকভাবে খুব ভালো সফর হয়েছে’ উল্লেখ করেন জয়শঙ্কর। বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে পাঁচটায় তার বাংলাদেশ ত্যাগ করার কথা রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই