মেইন ম্যেনু

সন্ধ্যা নামার আগেই হাতিরঝিলে অশ্লীলতা! (ভিডিও)

হাতিরঝিল প্রকল্প দ্বিতীয় আমেরিকা নামেই বেশি পরিচিত ছিল। তবে এই প্রকল্প চালু হওয়ার পর থেকেই মানুষের কাছে দুর্গন্ধ আর ময়লা-পঁচা পানির ডোবা হিসেবেই বেশি পরিচিতি লাভ করেছে।

নান্দনিক সৌন্দর্যে সাজানো হয়েছে বহুল প্রত্যাশিত হাতিরঝিলকে। দৃষ্টিনন্দন এই ঝিলের জল এখন কিছুটা হলেও স্বচ্ছ। আগের মত ময়লা আবর্জনার দেখা খুব একটা মিলে না। হাতিরঝিলটি বর্তমানে নগরবাসীর বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে বেশ পরিচিতি পেয়েছে। প্রাকৃতিক সম্পদের ওপর মানুষের হাত লেগে একটা মনোরম পরিবেশ তৈরি হয়েছে হাতিরঝিল বেগুনবাড়ী সমন্বিত প্রকল্প।

২০১৩ সালের ২ জানুয়ারি বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্ধোধন করা হাতিরঝিল প্রকল্পটি জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়। এরপর থেকেই হাতিরঝিল হয়ে উঠে নগরবাসীর কাছে বিনোদনের প্রিয় একটি স্থান। নান্দনিক সৌন্দর্য বহুল প্রতীক্ষিত এ হাতিরঝিলে কাক ডাকা সকাল থেকে রাত পর্যন্ত বিভিন্ন শ্রেনীর মানুষের সমাগম থাকে।

বিকেলে ব্রিজগুলোতে যানের চেয়ে মানুষের সংখ্যাই বেশি। দলবলে আসা মোটরসাইকেল আরোহীরা কিছুটা দাপুটে আর অবাধ্য।বিকেল বাড়ার সাথে সাথে ঝিলের পাড়ে ঘাসের ওপর বসা মানুষের সংখ্যাও বাড়তে থাকে। হকারদেরও আনাগোনা বেড়ে যায়। বিকেল গড়িয়ে সন্ধ্যা নামলেই দোকানিদের আয় বেড়ে পাঁচগুণ হয়ে ওঠে। এ সময়টিতে আশেপাশে খাবারের দোকানগুলোতে বিক্রি বাড়ে।

কিন্তু দু:খের বিষয় হল কিছু উচ্ছৃঙ্খল তরুণ-তরুণী হাতিরঝিলের এলাকাকে অসামজিক কাজের আখড়া বানিয়ে ফেলেছে। এখন আর গভীর রাতের জন্য অপক্ষো করতে হয় না। দিনের আলোতেই শুরু হয়ে যায় তরুণ তরুণীদের ভালোবাসার নামে কু-কীর্তি। বিশেষ করে সন্ধ্যার আজানের পর থেকেই ঝিলের উত্তর পাশে ব্রীজের নীচে এবং রাস্তার পাশ ঘেষে পানির কাছাকাছি অবস্থানটাই তারা বেছে নেয়।শীঘ্রই কর্তৃপক্ষ এর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিবে এটাই আশা এখানে ঘুরতে আসা পর্যটকদের।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন






মন্তব্য চালু নেই