মেইন ম্যেনু

সবাই টিভির সামনে, ঢাকা ফাঁকা

বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের খেলার কারণে রাজধানীর প্রতিটি সড়ক প্রায় ফাঁকা হয়েছে। সন্ধ্যার পর থেকেই পুরো ঢাকায় বিরাজ করছে উৎসবের আমেজ। প্রিয় দলের খেলা দেখতে অফিস ফেরত মানুষ দ্রুত বাসায় আসায় ঢাকা মহানগরীর প্রতিটি সড়ক এক প্রকার যানবাহনশূন্য হয়ে পড়েছে।

বুধবার রাত সাড়ে নয়টায় রাজধানীর কয়েকটি স্থানে গিয়ে দেখা গেছে, প্রতিটি সড়কে গাড়ি নেই বললেই চলে। রাস্তায় যেখানে টিভির শোরুম আছে সেখানে রিকশাওয়াল থেকে শুরু করে অনেক পথচারী বাংলাদেশের খেলা উপভোগ করছেন।

পান্থপথ মোড়ে একটি টিভির শোরুমে রিকশার উপর দাঁড়িয়ে খেলা দেখছিলেন রিকশাচালক আমজাদ। ভাড়া নিয়ে যাবেন কিনা এমন প্রস্তাব দেয়া হলে তিনি বলেন, ‘ভাই সারা জীবনই তো কামাই করেছি। আজ না হয় কামাই একটু কম হবে। বাংলাদেশের খেলা শেষ হওয়ার আগে কোথাও যামু না।’

সেখানে অটোরিকশা দাঁড় করিয়ে খেলা দেখছিলেন অটোচালক জাবেদ। তিনি বলেন, ‘আজ ঢাকায় অটোরিকশা চালাইয়া মজা পাচ্ছি। গাবতলি থেকে মাত্র ১৫ মিনিটে এখানে আসছি। হরতাল-অবরোধেও ঢাকা এমন ফাঁকা ছিল না। সবার মনে আজ বাংলাদেশের খেলা দেখার আনন্দ।”

মহাখালীতে দাঁড়িয়ে থাকা অটোচালক বাসিত বলেন, ‘ঢাকা শহরে অটো চালাইয়া মজা পাওয়া যায় না। কিছুক্ষণ পর পর দাঁড়াতে হয়। কিন্তু আজ মিরপুর থেকে এখানে আসতে মাত্র ১৫ মিনিট সময় লাগছে। একবার সিগনালে দাঁড়াতে হয়েছে। তাও গাড়ির বেশি চাপ ছিল না বলে এক মিনিটের মধ্যেই ছেড়ে দিয়েছে।”

এদিকে শাহবাগে গিয়ে দেখা গেছে, সেখানে বড় পর্দায় খেলা দেখার জন্য শত শত জনতা উপস্থিত হয়েছে। গোটা শাহবাগ যেন মিরপুর স্টেডিয়াম হয়ে গেছে। বাংলাদেশ দল চার-ছক্কা মারার সঙ্গে সঙ্গে তারা তুমুল করতালি দিচ্ছেন।






মন্তব্য চালু নেই