মেইন ম্যেনু

সব সিমের তথ্য নির্বাচন কমিশনে

দেশের সব মোবাইল অপারেটর কোম্পানিগুলো তাদের কাছে থাকা নিবন্ধিত সব সিমের তথ্য যাচাই করার জন্য নির্বাচন কমিশন- ইসিতে পাঠাচ্ছে।

সোমবার জাতীয় পরিচয়পত্র নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সুলতানুজ্জামান মো. সালেহ উদ্দীন এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, তথ্য যাচাইয়ের জন্য সবগুলো মোবাইল কোম্পানি আমাদের কাছে আবেদন করেছে। এখন পর্যন্ত গ্রামীণ ফোন ৫০ হাজার, রবি ১৩ হাজার এবং বাকি অপারেটররা ৫ হাজার করে তথ্য পাঠিয়েছে। আমরা এগুলো যাচাই করে দেখবো যে, সিম নিবন্ধনকারীদের দেওয়া তথ্যগুলো সঠিক আছে, কি না।

সুলতানুজ্জামান জানান,আমরা চুক্তি ছাড়া কোনো ভেরিফিকেশন সার্ভিস দেবনা । কিন্তু প্রতিমন্ত্রী মহোদয়ের সাথে তথ্য যাচাইয়ের বিষয়ে বৃহস্পতিবার কথা হয়েছে। সেক্ষেত্রে আমরা ‘বাল্ক ডাটা (একসঙ্গে অনেক গ্রাহকের তথ্য)’ পেয়েছি তা যাচাইয়ের প্রক্রিয়া শুরু করবো। তবে দ্বিপাক্ষিক চুক্তির পরই মন্ত্রণালয়ের কাছে এ সংক্রান্ত তথ্য হস্তান্তর করা হবে।

গত বৃস্পতিবার মোবাইল অপারেটরগুলোর প্রতিনিধিদের নিয়ে সচিবালয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম সভা করেন। সেখানে জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালকও উপস্থিত ছিলেন। সভা শেষে প্রতিমন্ত্রী আগামী রোববার (গতকাল) থেকে সব সিম যাচাই প্রক্রিয়া শুরু হয়ে ১৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে বলে জানান।

গ্রাহকদের তথ্য যাচাইয়ে জাতীয় তথ্য ভাণ্ডার কর্তৃপক্ষ (এনআইডি) নিজেদের গ্রাহকদের তথ্য দেবে বলেও জানান তিনি। উল্লেখ্য,বিটিআরসির হিসাব অনুযায়ী, গত জুলাই পর্যন্ত বাংলাদেশের ছয়টি মোবাইল ফোন অপারেটরের গ্রাহক সংখ্যা ছিল ১২ কোটি ৮৭ লাখ।






মন্তব্য চালু নেই