মেইন ম্যেনু

সমাজকল্যাণ মন্ত্রীর মরদেহ ঢাকায়

সমাজকল্যাণ মন্ত্রী সৈয়দ মহসিন আলীর মরদেহ সিঙ্গাপুর থেকে ঢাকায় পৌঁছেছে।

মঙ্গলবার রাত ১০টা ৪০ মিনিটে তার মরদেহ হজরত শাহজালাল (র.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছে। এর আগে বেলা সাড়ে তিনটায় সিঙ্গাপুরে সৈয়দ মহসিন আলীর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মন্ত্রীর মরদেহ গ্রহণ করতে বিমানবন্দরে উপস্থিত হয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত, প্রধানমন্ত্রীর পররাষ্ট্র বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী, জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ আসম ফিরোজ প্রমুখ।

সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মাইদুল ইসলাম এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জনসংযোগ কর্মকর্তা জানান, বিমানবন্দরে আনুষ্ঠানিকতা শেষে মন্ত্রীর মরদেহ ৩৪ নম্বর মিন্টো রোডে মন্ত্রীর সরকারি বাসভবনে আনা হবে। এরপর রাতে বারডেম মরচুয়ারিতে তার মরদেহ রাখা হবে। বুধবার সকাল ৮টায় তার মরদেহ ঢাকা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মন্ত্রীর প্রতি সকল স্তরের মানুষের শ্রদ্ধা জানানোর জন্য এক ঘণ্টা রাখা হবে।

এর পরপরই মহসিন আলীর মরদেহ জাতীয় সংসদ কমপ্লেক্স দক্ষিণ প্লাজায় নিয়ে যাওয়া হবে, সেখানে তার নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।
এখানে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার, মন্ত্রী পরিষদের সদস্যবৃন্দ, চিফ হুইপ, হুইপ ও সংসদ সদস্যবৃন্দ মন্ত্রীর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন। এখানে এই মুক্তিযোদ্ধাকে গার্ড-অব-অনার প্রদান করা হবে।

এখান থেকে হেলিকপ্টারে মন্ত্রীর মরদেহ মৌলভীবাজার জেলা স্টেডিয়ামে এবং এখান থেকে শহরে তার বাসভবন দর্জিমহলে নিয়ে যাওয়া হবে।
পরে তার মরদেহ মৌলভীবাজার সরকারি হাইস্কুল মাঠে শহীদ মিনারে বিকাল ২টা থেকে ৪টা পর্যন্ত রাখা হবে। সব স্তরের লোক এখানে তার প্রতি শ্রদ্ধা দিবেদন করবে। বাদ আসর হযরত সৈয়দ শাহ মোস্তফা বোগদাদীর (র.) মাজার সংলগ্ন কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হবে।

সৈয়দ মহসিন আলী হৃদরোগ ও অন্যান্য স্বাস্থ্যগত সমস্যায় সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল সোমবার বাংলাদেশ সময় সকাল ৮টা ৫৯ মিনিটে ইন্তেকাল করেন।






মন্তব্য চালু নেই