মেইন ম্যেনু

সমালোচকদের কড়া জবাব দিলেন মাইকেল ক্লার্ক

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে এ্যাশেজ সিরিজের পরেও নিজের ক্যারিয়ার চালিয়ে যাবার ঘোষণা দেওয়ার পাশাপাশি সমালোচকদের জবাব দিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক। চলমান এ্যাশেজ সিরিজে ছয় ইনিংসে ১৯এরও নীচে গড় নিয়ে মাত্র ৯৪ রান করার পরে ক্লার্কের উপর দল এবং দলের বাইরের চাপ ক্রমশ বেড়েই চলেছে।

অস্ট্রেলিয়ান গণমাধ্যমেও তাকে নিয়ে সমালোচনা চলছেই। কোন কোন পত্রিকা তো বলেই দিয়েছে তার ক্যারিয়ার শেষের পথে। কিন্তু ২৮টি টেস্ট সেঞ্চুরির মালিক ৩৪ বছর বয়সী ক্লার্ক স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছেন তিনি কোথাও যাচ্ছেন না।

সিডনি ডেইলি টেলিগ্রাফে লেখা এক কলামে ক্লার্ক বলেছেন, ‘এই মুহূর্তে আমাকে নিয়ে যে সমালোচনা হচ্ছে তা নিয়ে আমার কোন আক্ষেপ নেই। আমি ভিন্ন কিছু আশাও করি না। বিশেষ করে আমি যেহেতু দলের অধিনায়ক আমাকে নিয়ে সমালোচনা হওয়াটাই স্বাভাবিক। কিন্তু আমি শুনেছি কিছু কিছু পত্রিকায় লেখা হয়েছে আমার মধ্যে নাকি ভাল করার কোন আগ্রহ নেই। এই সিরিজের পরেই আমার অবসরে যাওয়া উচিত। এগুলো সম্পূর্ণ ভাবেই বানোয়াট কথা।’

ক্লার্ক আরো কলেছেন, আমার পারফরমেন্স নিয়ে মানুষ এখন যে কথাগুলো বলছে তা বলার আগে তাদের চিন্তা করা উচিত ছিল। অতীতে আমি দলের জন্য কি করেছি এবং আমার মধ্যে কি করার ক্ষমতা আছে। এখনো অনুশীলনে সবার আগে আমি আসি এবং সবার পরে মাঠ ছেড়ে যাই। তাই আমার মধ্যে ভাল করার আগ্রহ নেই একথা বলার কোন অবকাশ নেই। এখনই ক্রিকেট ছাড়ার কোন ইচ্ছা আমার মধ্যে নেই। ক্রিস রজার্স তার ক্যারিয়ারে দ্বিতীয় টেস্ট খেলার জন্য ৩৫ বছর পর্যন্ত অপেক্ষা করেছে। আমার বয়স এখন ৩৭ নয়, ৩৪। এই সিরিজের পরেই আমি অস্ট্রেলিয়ার হয়ে খেলা চালিয়ে যেতে চাই। যদিও অন্য সকলের মতই পারফরমেন্স করেই আমাকে দলে টিকে থাকতে হবে।

পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজে অস্ট্রেলিয়া ২-১ ব্যবধানে পিছিয়ে আছে। ক্লার্ক স্বীকার করেছেন এই দলে তার বাজে ফর্মের অর্থ হচ্ছে অস্ট্রেলিয়া ১০ জন খেলোয়াড়কে নিয়ে খেলছে। কিন্তু নিজের ফর্ম ফিরে পাবার ব্যপারে আশাবাদী ক্লার্ক। তার মতে, চাপের মধ্যে থেকে আমি আগেও নিজেকে ফিরে পেয়েছি। এখনও যেকোন ধরনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার জন্য আমি প্রস্তুত। এখন শুধুমাত্র নিজের উপর আত্মবিশ্বাস রেখে কঠোর পরিশ্রম করে যেতে চাই।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই