মেইন ম্যেনু

সম্মেলন শুরুর আগেই রাজধানীজুড়ে ভোগান্তি

মতিঝিল থেকে মোহাম্মদপুরে যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন এপিসিএল বাসের চালক রফিক। সময় তখন শনিবার সকাল সাড়ে ৮টা। গুলিস্তান মোড়ে আসার পর ট্রাফিক পুলিশ তাকে রমনার রাস্তা এড়িয়ে দোয়েল চত্বর হয়ে নিউমার্কেট নিয়ে যাওয়ার কথা বলে দেন। কিন্তু দোয়েল চত্বরে এসেই তিনি বাস নিয়ে আটকে পড়েন। শহীদ মিনারের দিকে যাওয়ার জন্য ২০ মিনিটেও বেশি অপেক্ষা করতে হয় তাকে।

একই অবস্থা আওয়ামী লীগের ২০ তম কাউন্সিল স্থলের আশপাশের সবগুলো মোড়সহ রাজধানীর বিভিন্ন রাস্তায়। শনিবার (২২ অক্টোবর) সকাল ১০ টায় কাউন্সিল শুরুর কথা থাকলেও ভোর থেকেই বিভিন্ন জেলা থেকে আসা কাউন্সিলর ও ডেলিগেটরা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের সম্মেলন স্থলে আসতে শুরু করেন। তবে বিশৃঙ্খলা এড়াতে গণপরিবহনের জন্য বিকল্প পথ নির্দিষ্ট করেও যানজট এড়ানো যায়নি।

শনিবার মৎস ভবন, হাইকোর্টের সামনে কদম ফোয়ারার মোড়, শিক্ষা ভবনের সামনে রমনাগামী মোড়, দোয়েল চত্বর থেকে টিএসসি ও শহীদমিনারের দিকের মোড়, শাহবাগ থেকে টিএসসি ও কাঁটাবন সিগন্যালের দিকের রাস্তা ব্যারিকেড দিয়ে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। শনিবার ছুটির দিন হওয়ার পরও সবগুলো মোড়েই সকাল থেকেই যানজট দেখা গেছে।

সাধারণ যাত্রীরা অভিযোগ করেন, সম্মেলনস্থলের আশপাশের রাস্তাগুলোয় গাড়ি স্বাভাবিকভাবে চলাচল করতে পারছে না। তারওপর নেতাকর্মীরা যেভাবে খুশি রাস্তা দিয়ে চলাচল করার কারণেও বিশৃঙ্খলা তৈরি হয়েছে। পর্যাপ্ত ট্রাফিক পুলিশও নেই রাস্তায়। সম্মেলনে অংশ নিতে আসা লোকেরা ইচ্ছামতো গাড়ি পার্ক করছে।

মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারের ধীরে যান চলাচল করছে। চানখারপুল মোড়ে যানজট তৈরি হয়েছে সকাল থেকেই। বকশিবাজার মোড় সহ আশপাশের সব রাস্তায়ই যানজট।

সকাল ৯টার দিকেও চানখারপুল মোড়ে ট্রাফিক পুলিশের কোনও সার্জেন্ট দেখা যায়নি। ট্রাফিক বিভাগের একজন এএসআই ছিলেন সেখানে। এএসআই আখতার বলেন, ‘সকাল থেকেই চেষ্টা করছি যান নিয়ন্ত্রণের। বেলা বাড়ছে, গাড়িও বাড়ছে, দেখি পরিস্থিতি কী হয়।’

সম্মেলন স্থলে প্রবেশের জন্য কাউন্সিলরদের জন্য ৪টি গেট নির্ধারিত থাকলেও এখন পর্যন্ত তাদের বেশি প্রবেশ করতে দেখা গেছে রমনা কালিমন্দির ও টিএসটি গেট দিয়ে। এছাড়া পল্টন থেকে শাহবাগ আসার সব রাস্তা বন্ধ করে দেওয়ায় লোকজন বাধ্য হয়ে পায়ে হেঁটে চলাচল করছেন।

এদিকে সাইনল্যাব মোড় থেকে এলিফ্যান্ট রোডের দিকে যান চলাচল শনিবার সকাল ৭টা থেকেই বন্ধ। পথচারীদের তল্লাশি করে যেতে দেওয়া হচ্ছে সে পথে। মিরপুর-১ ও গাবতলী থেকে আসা বাসা আসাদগেট হয়ে ফার্মগেট যেতে পারছে না। আবার শুক্রাবাদ থেকে পান্থপথ হয়েও কাওরানবাজার বাসে করে যাওয়ার সুযোগ নেই। ফলে কাওরানবাজার যেতে হলে আসাদগেট থেকে হেঁটে যেতে হচ্ছে।

আওয়ামী লীগের সম্মেলন উপলক্ষে রাজধানীতে যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করবে পুলিশ। এই দুদিন শাহবাগ হয়ে মৎস্য ভবনের দিকে এবং জাতীয় প্রেসক্লাব হয়ে শাহবাগের দিকে কোনও গাড়ি চলতে দেওয়া হবে না বলে আগেই জানিয়ে দিয়েছে ঢাকা মহানগর পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই