মেইন ম্যেনু

‘সরকারের পায়ের নিচের মাটি সরে গেছে’

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘সরকারের পায়ের নিচের মাটি সরে গেছে, তাই এখন বিএনপিসহ বিরোধী দলগুলোকে নির্মূল করার অভিযানে সর্বশক্তি দিয়ে নেমে পড়েছে।’

বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেন মির্জা ফখরুল। আজ বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকনের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাঁকে আদালতে পাঠিয়েছেন আদালত।

খায়রুল কবির খোকনকে কারাগারে পাঠানোর ঘটনায় নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে ওই বিবৃতি দেন মির্জা ফখরুল। খায়রুল কবির খোকনের মুক্তিও দাবি করেছেন বিএনপির মহাসচিব।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘বিএনপির সিনিয়র নেতাদেরসহ সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলায় দেশের কারাগারগুলো ভরে ফেলা হয়েছে। আওয়ামী শাসকগোষ্ঠী এত মিথ্যা মামলা দায়ের ও এত গ্রেপ্তার করেও নিজেদের নিরাপদ মনে করছে না। তাই বিএনপির সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের বন্দি করে নিজেদের রক্তাক্ত দুঃশাসন প্রলম্বিত করতে চাচ্ছে। বিরোধী দলকে নানাভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করার অংশ হিসেবেই আজ বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকনের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। দেশ পরিচালনায় ব্যর্থ হয়ে বর্তমান শাসকগোষ্ঠী তাদের দুর্বিনীত অপশাসনের বিরুদ্ধে বিরোধী দলগুলোর নেতাদের মুখ বন্ধ করতেই বানোয়াট মামলা দায়ের ও গ্রেপ্তারের অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে। নৈরাজ্যময় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি, খাদ্যদ্রব্যসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের হু হু করে মূল্যবৃদ্ধি, উন্নয়নের নামে বেসামাল লুটপাট ইত্যাদিতে সম্পূর্ণরূপে জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে সরকার।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ’৯০-এর স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে একজন দৃঢ়চেতা ছাত্রনেতা ও বর্তমান ভোটারবিহীন সরকারের অন্যায়-অবিচার ও জুলুম-নির্যাতনের বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকার জন্যই খায়রুল কবির খোকনকে সরকারের রোষানলে পড়তে হয়েছে। সেই কারণে আজ তাকে মিথ্যা মামলায় কারাগারে পাঠিয়ে সরকার আরেকটি ন্যক্কারজনক দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করল।’






মন্তব্য চালু নেই