মেইন ম্যেনু

সরকার বিএনপি ধ্বংসের গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত : দুদু

বর্তমান সরকারকে অবৈধ আখ্যা দিয়ে তাদের অনৈতিক ক্ষমতাকে মজবুত করতে সারাদেশে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের উপর বর্ণনাতীত স্টিমরোলার চালাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু।

তিনি বলেন, ১/১১ অবৈধ সরকার যেভাবে দেশকে রাজনীতি শূন্য করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছিল তারাই ধারাবাহিকতায় বর্তমান সরকারও দেশকে বিরোধীদল শূন্য করতে ঘৃণ্য পথ অবলম্বণ করেছে। আর সেক্ষেত্রে বিএনপির জাতীয় নেতৃবৃন্দকে টার্গেট করেছে, মিথ্যা মামলায় আদালতে হাজিরা দিতে গেলে জামিন না দিয়ে কারাগারে পাঠাচ্ছে।

সোমবার বেলা সোয়া ১১টায় দলের নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

দুদু অভিযোগ করেন, রাষ্ট্র ক্ষমতা দখলকারীরা সারাদেশে নেতাকর্মীদের ওপর জুলুম নির্যাতন চালিয়ে বিএনপিকে ধ্বংস করার গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। তারা রাষ্ট্র যন্ত্রকে ব্যবহার করে মিথ্যা মামলায় সারা দেশকে জেলখানায় পরিনত করেছে। প্রশাসনের সকল স্তরে দলীয় লোকদের বসিয়ে রাষ্ট্রের সকল স্তম্ভকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিয়েছে। এমনকি ক্ষমতার দাপটে অন্ধ হয়ে আওয়ামী লীগ ন্যূনতম মানবিকবোধটুকুও বিসর্জন দিয়ে দিয়েছে।

এসময় দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী ও যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেলসহ দলের সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন দুদু।

সাবেক এই ছাত্রনেতা অভিযোগ করেন, বিএনপি যখনই সাংবিধানিক অধিকার হিসাবে স্বীকৃত রাজনৈতিক কর্মসূচি পালনের উদ্যোগ নেয় তখনই সরকার নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে নিত্য-নতুন মিথ্যা মামলায় চার্জ গঠন করে। এর মূল লক্ষ্য হলো বিরোধী দলকে কোনোভাবেই সাংগঠনিক কাজ করতে না দেয়া।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা আহমেদ আযম খান, হাবিবুর রহমান হাবিব, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, আজিজুল বারী হেলাল, আব্দুস সালাম আজাদ প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই