মেইন ম্যেনু

সসাস প্রযোজিত “লাল ফড়িং” অ্যালবামের মোড়ক উন্মোচন

সসাস প্রযোজিত শিশুতোষ গানের ভিজ্যুয়াল অ্যালবাম “লাল ফড়িং” এর মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে। গতকাল রাজধানীর মল্লিক মিলনায়তনে অ্যালবামটির মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সসাসের নির্বাহী পরিচালক মোস্তফা মনোয়ার এর সভাপতিত্বে ও সহকারী নির্বাহী পরিচালক আরিফুল ইসলাম এর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, গীতিকার, সুরকার তাফাজ্জল হোসাইন খান। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন বিশিষ্ট সুরকার ,শিল্পী মশিউর রহমান, গীতিকার ,সুরকার,শিল্পী মাসুদ রানাসহ আরো উপস্থিত ছিলেন সসাসের পরিচালনা পরিষদের সদস্যবৃন্দ। দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছড়িয়ে থাকা প্রতিভাবান শিশুশিল্পীদের সন্ধানে ২০১৫ সালে সসাস আয়োজন করে অনলাইন ভিত্তিক গানের প্রতিযোগিতা “সেরা শিশুকণ্ঠ”।

এদেশে এটিই প্রথম অনলাইন ভিত্তিক প্রতিযোগিতা। ব্যতিক্রমী এই আয়োজনে দেশব্যাপী ব্যাপক সাড়া পড়ে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান,থানা, জেলা,বিভাগীয় ও জাতীয় পর্যায় প্রতিযোগিতার মাধ্যমে বাছাই করা হয় সেরা ৬শিল্পীকে। সসাস প্রতিশ্রুত সেরা শিল্পীদের নিয়ে এবার প্রকাশিত হলো ‘লাল ফড়িং’ভিজ্যুয়াল অ্যালবাম। অ্যালবামটিতে কণ্ঠ দিয়েছে সেরা ছয় শিল্পী যথাক্রমে সাবা তাসনুবা,স্বাধীন,মফিজুল ইসলাম ইমন,রুবাইয়াত,তাহিয়া ও জান্নাত। উপস্থাপনায় আরাফাত ও ¯িœগ্ধা। অ্যালবামটি স্ব-মহিমায় ভাস্বর। এর কথা,সুর আঙ্গিক ও চিত্রধারণসহ সব কিছুতেই এসেছে এক অনিন্দ্য ভিন্ন রূপ। ইসলামী গানের গতানুগতিক ধারার মাঝে এটি একটি নতুন মাত্রা যোগ করবে। অতিথিরা তাদের বক্তব্যে বলেন, সুস্থ সংস্কৃতি প্রচার ও প্রসারের লক্ষ্যে সসাস যে ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে লাল ফড়িং অ্যালবামের মাধ্যমে তা আবার প্রমাণ করল। আর প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে প্রতিভাবান শিল্পীদের খুঁজে বের করার যে জাতীয় দায়িত্ব সসাস গ্রহণ করেছে তা সত্যিই প্রশংসার দাবিদার। সাথে সাথে সসাসের সৃষ্টিশীল ও নান্দনিক কার্যক্রমে সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।






মন্তব্য চালু নেই