মেইন ম্যেনু

সহজ ৫টি ধাপে করে ফেলুন পার্লারে মত স্পা ফেসিয়াল

ত্বকের উজ্জ্বলতা, কোমলতা বৃদ্ধি করতে ফেসিয়াল অনেক বেশি কার্যকরী। নিয়মিত ফেসিয়াল করলে ত্বকের ব্রণ হওয়ার প্রবণতা কমায়, রোদে পোড়া দাগ দূর করে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে থাকে। কিন্তু ব্যস্ততার কারণে অনেকেই ফেসিয়াল করাতে পার্লারে যেতে পারেন না। পার্লারে না গিয়ে ঘরে বসে ফেসিয়াল করা গেলে কেমন হয় বলুন তো? দারুন না? আজকে আপনাদের ঘরে বসে পার্লারের মতো ফেসিয়াল করার নিয়মটা জানিয়ে দেওয়া যাক।

১। ত্বক পরিষ্কার করা
সারাদিনে ত্বকে জমে থাকা ময়লা প্রথমে পরিষ্কার করে নিতে হবে। ত্বকের সাথে মানানসই কোন ক্লিনজার দিয়ে প্রথমে ত্বক পরিষ্কার করে নিন। এক টুকরো তুলোর বল দুধে ভিজিয়ে সেটি দিয়ে ত্বক পরিষ্কার করে নিতে পারেন। লক্ষ্য রাখবেন ম্যাসাজ যেন উর্ধ্বগামী হয়।

২। এক্সফলিয়েট
এক্সফলিয়েট অথবা স্ক্রাব ত্বকের মৃত কোষ দূর করে নতুন কোষ তৈরি করতে সাহায্য করে। এটি লোমকূপের ছিদ্র ছোট করে থাকে। একটি বাটিতে আধ কাপ নারিকেল তেল নিয়ে এতে ২ টেবিল চামচ চিনি ও ১ টেবিল চামচ লেবুর রস দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। এরপর এই মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে আঙ্গুলে ডগা দিয়ে হালকা করে ম্যাসাজ করে নিন ১০ মিনিট। এরপর কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এছাড়া বাজারে স্ক্রাব কিনতে পাওয়া যায়, সেটি এক্সফলিয়েট হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন।

৩। স্টীমিং
স্টীমিং করার অনেকগুলো উপায় আছে।এক বালতি গরম পানিতে লেবুর রস মিশিয়ে নিন।তারপর সেটা দিয়ে ৫ মিনিট মুখে ভাপ দিন। এটি ত্বকের ছিদ্রের ভিতর থেকে ময়লা বের করে নিয়ে আসে।

৪। ফেস প্যাক
ত্বকের ধরণ অনুযায়ে ফেসপ্যাক ব্যবহার করুন। তৈলাক্ত ত্বক হলে আপনি কোন মাটি যেমন মুলতানি মাটি, ডিমের সাদা অংশ এবং গোলাপ জল দিয়ে প্যাক তৈরি করে ব্যবহার করতে পারেন, যা ত্বকের তেল শুষে নিবে। আবার ড্রাই ত্বকে ফ্রুট প্যাক ব্যবহার করতে পারেন। প্যাকটি ত্বকে লাগিয়ে ১০-১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। দুই চোখের নিচে শসা দিয়ে রাখুন। শুকিয়ে ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

৫। ময়েশ্চারাইজিং
ফেসপ্যাক মুছে ফেলার পর মুখে টোনার লাগাতে হবে। গোলাপজল ভাল টোনার হিসেবে কাজ করে। টোনার ব্যবহার করার পর ভাল কোন ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে। এটি ফেসিয়ালের শেষ ধাপ। তৈলাক্ত ত্বকে হালকা পানি সম্বলিত ময়েশ্চারাইজার, শুষ্ক ত্বকে ওয়েল বেইজড ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করা উচিত। অলিভ অয়েল বেশ ভাল প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার।






মন্তব্য চালু নেই