মেইন ম্যেনু

সাংবাদিকের টাকা হাতিয়ে নিল পুলিশ

রাজধানীর যাত্রাবাড়ি থানার শনির আখরা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ‘পুলিশের চাঁদাবাজি’র ঘটনার অনুসন্ধানী সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে দুই সাংবাদিক দায়িত্বরত এএসআই ফরিদ উদ্দিনের হাতে তল্লাশির নামে লাঞ্ছনার শিকার হয়েছেন।

এসময় ওই পুলিশ কর্মকর্তা দুই সাংবাদিকের মানিব্যাগসহ ১২শ টাকা হাতিয়ে নেয় বলেও অভিযোগ তাদের। রোববার দুপুর পৌনে ১২টার দিকে জনসম্মুখে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার শিকার দৈনিক জনতার সিনিয়র প্রতিবেদক শফিকুল ইসলাম জানান, দৈনিক ডেসটিনি পত্রিকার মফস্বল সম্পাদক আলী মুনসুরকে নিয়ে উক্ত বাস স্ট্যান্ড এলাকায় আসলেই এসআই ফরিদ উদ্দিন তাদের ডেকে নিয়ে তল্লাশি শুরু করেনে। সাংবাদিক পরিচয় দিলেও ফরিদ উদ্দিন বলেন, ‘তোরা কিসের সাংবাদিক? তোরাতো প্রতিদিন যাত্রাবাড়ি থানায় সন্ধার পরে আসিস না। তাহলে তোরা কিসের সাংবাদিক?’

এ ব্যাপারে যাত্রাবাড়ি থানার ওসি অবনী রায় বলেন, ‘অভিযোগ অনেক কিছুই হতে পারে, তবে আমার কাছে এখনও এরকম কোনো অভিযোগ আসেনি। ওই সাংবাদিক আমার কাছে এখনও ওই অভিযোগ আনেনি। তবে আমি যা শুনেছি, ওই লেগুনাতে ওই দুই সাংবাদিক উঠতে ছেয়েছিল। এই নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়।’

লাঞ্ছনার শিকার দুই সাংবাদিকের এমন অভিযোগকে হাস্যকর ও মিথ্যা দাবি করে ওসি আরও বলেন, ‘সাংবাদিকের পকেট থেকে টাকা নিবে এরকম সাহস পুলিশের আছে বলে আমার জানা নেই। কেউ যদি হাস্যকর অভিযোগ আনে, এটা খুব কষ্টকর।’

তবে অভিযোগ প্রমানিত হলে অভিযুক্ত পুলিশের বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নেয়া হবে বলে জানান ওসি অবনী রায়।

এই ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে)-এর সভাপতি আলতাফ মাহমুদ ও সাধারণ সম্পাদক কুদ্দুস আফ্রাদ বলেন, ‘অবিলম্বে এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে দায়ি পুলিশের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে।’






মন্তব্য চালু নেই