মেইন ম্যেনু

সাংসদ কেরামতের গাড়িবহরে হামলা

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানাতে যাওয়ার পথে ফরিদপুরে রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলীর গাড়িবহরে হামলা হয়েছে। এতে আহত হয়েছেন অন্তত ১৫ জন। তবে সাংসদ অক্ষত রয়েছেন।

শনিবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে ফরিদপুর শহরের বাইপাস সড়কের পিয়ারপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। হামলার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় পুলিশ তিনজনকে আটক করে।

বহরের সঙ্গে থাকা একাধিক গণমাধ্যমকর্মী জানান, সকাল পৌনে ১০টার দিকে বাইপাস সড়কের পিয়ারপুর এলাকায় বহরের গাড়িগুলো পৌঁছালে পেছন দিক থেকে একটি ট্রাক ওভারটেক করে। ওই ট্রাকটি ওভারটেক করতে গিয়ে সড়কের পাশে দাঁড়ানো একটি হলুদ রঙের পিকআপকে ধাক্কা দেয়। পিকআপটি আবার আরেকটি অটোবাইককে ধাক্কা দেয়। এতে স্থানীয় উত্তেজিত জনতা ওই বহরের দুটি বাস ভাঙচুর করে। এরপর কিছুদূর যাওয়ার পর আবারও সড়কে ব্যারিকেড দিয়ে বহরের বাস আটকানোর চেষ্টা করে স্থানীয় লোকজন। এ সময় অন্তত ১৫ জন নেতা-কর্মী ইটপাটকেলে আহত হন। তবে বহরের সামনে মাইক্রোবাসে থাকা রাজবাড়ী-১ আসনের সাংসদ কাজী কেরামত আলী এবং সংরক্ষিত আসনের সাংসদ কামরুন্নাহার চৌধুরী অক্ষত আছেন।

আহত ব্যক্তিরা ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

ফরিদপুর ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট তুহিন লস্কর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে পুলিশ সুপার (এসপি) মো. জামিল হাসান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পুলিশি পাহারায় শহরতলির বাখুন্ডা এলাকা পর্যন্ত বহরের গাড়িগুলো পার করে দেওয়া হয়। এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই