মেইন ম্যেনু

সাইবার হামলার শিকার হিলারির নির্বাচনী প্রচারণা

আর কয়েক মাস পরেই যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। নির্বাচনের আগেই ডেমোক্রেট দল এবং হিলারি ক্লিনটনের প্রচারণা সাইবার হামলার শিকার হয়েছে। মার্কিন গণমাধ্যমের খবরে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এ হামলার জন্য রাশিয়াকে দায়ী করা হচ্ছে। খবর বিবিসির।

মার্কিন কর্তৃপক্ষ বলছে, রাশিয়ার সরকারের হয়ে কাজ করছে এমন এজেন্টরাই এই সাইবার হামলা চালিয়েছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়া প্রভাব বিস্তার করতে চাইছে এমনটাই আশঙ্কা করছে বিশ্লেষকরা।

তবে এ ধরনের অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করেছে রাশিয়া। তারা এধরনের অভিযোগ আনায় তীব্র নিন্দাও জানিয়েছে।

হিলারি ক্লিনটনের নির্বাচনী প্রচার অফিস জানিয়েছে, শুক্রবার বিশ্লেষণধর্মী একটি ডাটা প্রোগ্রাম হ্যাক করা হয়েছে। তবে তাদের অভ্যন্তরীন সিস্টেমে ঢুকতে পারেনি হ্যাকাররা। গত সপ্তাহে জাতীয় কনভেনশনে দলের জাতীয় কমিটির হ্যাক হওয়া ইমেইল ফাঁস হয়ে যায়।

এর আগে ক্লিনটনের ইমেইল অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে সেগুলো প্রকাশ করতে রাশিয়ার প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন রিপাবলিকান দলের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ট্রাম্প তার প্রতিপক্ষ দলের প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের ইমেইল হ্যাক করতে রাশিয়াকে উৎসাহ যোগাচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন ডেমোক্রেট দলের সদস্যরা।

কয়েকদিন আগে ডেমোক্রেট দলের আরেক প্রার্থী বার্নি স্যান্ডার্সের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়া সংক্রান্ত কিছু ইমেইল ফাঁস হবার পর প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা মন্তব্য করেছিলেন, এর পেছনে রাশিয়ার হাত থাকতে পারে।

ট্রাম্প রাশিয়াকে উদ্দেশ্য করে বলেছিলেন, ‘রাশিয়া, যদি তুমি এ বক্তব্য শুনে থাকো, আমি আশা করি হারিয়ে যাওয়া সেই ত্রিশ হাজার ইমেইল তুমি খুঁজে বের করতে পারবে। আমার ধারণা এজন্য আমার দেশের গণমাধ্যম একদিন তোমাদের ধন্যবাদ দেবে।’






মন্তব্য চালু নেই