মেইন ম্যেনু

সাঈদীর ফাঁসি চেয়ে রিভিউ করবেন রাষ্ট্রপক্ষ

মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় আপিলের চুড়ান্ত রায়ে আমৃত্যু কারাদণ্ড প্রাপ্ত জামায়াত নেতা দেলওয়ার হোসেন সাঈদীর ফাঁসি চেয়ে রিভিউ করবেন রাষ্ট্রপক্ষ।

আজ রোববার সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে অ্যাটর্নি জেনারেল তার কার্যালয়ে এ সব কথা বলেন। তিনি বলেন, সাঈদীর রায়ের কপি বের হলে আমরা তার মৃত্যুদণ্ড চেয়ে রিভিউ আবেদন করবো।

ট্রাইব্যুনালের দেয়া দণ্ডের বিরুদ্ধে আপীল বিভাগে পাঁচটি মামলার চূড়ান্ত নিষ্পত্তি হলেও এখন পর্যন্ত তিনটি মামলার পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয়নি।

অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয় আশা করছেন শীঘ্রই দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী ও আলী আহসান মুজাহিদের মামলার পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হতে পারে। পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের পর নিয়ম অনুযায়ী সাঈদীর মৃত্যুদণ্ড চেয়ে রিভিউ করা হবে বলেও জানান অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। নিজ কার্যালয়ে রবিবার সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানিয়েছেন অ্যাটর্নি জেনারেল।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মামলার ব্যাপারে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি। পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হলে তার (সাঈদী) মৃত্যুদণ্ড চেয়ে রিভিউ পিটিশন করা হবে।

জামায়াতের অপর নেতা আলী আহসান মুজাহিদের রায়ের ব্যাপারে তিনি বলেন, আশা করছি অতি শিগগিরই রায় বের হবে।রায় লিখে কম্পোজ করেছেন কিনা,সার্কুলেশনে গেছে কিনা, এটা সম্পর্কে আমিতো বক্তব্য রাখতে পারি না। আমি রায় শিগগিরই বের হওয়ার প্রত্যাশা করতে পারি। আশা করি অচিরেই রায় পাবো। ২/৩ সপ্তাহ, চার সপ্তাহ দরে নেয়া হতে পারে। তার চেয়ে এক সপ্তাহ বেশি হলে অন্যায় হবে না।

জামায়াতের নায়েবে আমির দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর আপীলের রায় ঘোষণা করা হয় ২০১৪ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর, মুজাহিদের রায় ঘোষণা করা হয় চলতি বছরের ১৬ জুন আর সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর আপীলের চূড়ান্ত রায় ঘোষণা করা হয় ২৯ জুলাই। এর আগে জামায়াতের দুই সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আব্দুল কাদের মোল্লা ও মোহাম্মদ কামারুজ্জামানের মামলার চূড়ান্ত আপীল নিষ্পত্তি শেষে তাদের মৃত্যুদ- কার্যকর করা হয়েছে। বর্তমানে নিজামী-মীর কাশেমসহ আরও আটটি মামলা আপীল নিষ্পত্তির অপেক্ষায় রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই