মেইন ম্যেনু

সাকা খালাস পাবেন, আশা খন্দকার মাহবুবের

সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী ১৯৭১ সালের ২৯ মার্চ থেকে ৭৪ পর্যন্ত দেশের বাইরে ছিলেন বলে সাংবাকিদের জানিয়েছেন তার আইনজীবী অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন। আজ মঙ্গলবার দুপুরে আপিল বিভাগ থেকে বেরিয়ে খন্দকার মাহবুব হোসেন সাংবাদিকদের কাছে এ সব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ঐ সময়ে সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী পাঞ্জাব ইউনিভার্সিটিতে লেখা পড়া করতেন। এ মামলায় তার বিরুদ্ধে যে সকল অভিযোগ আনা হয়েছে তা রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত। তিনি বলেন, প্রসিকিউশনের পক্ষ অভিযোগ আনা হয়েছিলো যে সালাউদ্দিন কাদেরের ওপর হামালা করা হয়েছিলো। কিন্তু স্বাক্ষী হিসেবে ঐ গাড়ীর ড্রাইভারকে আদালতে হাজির করা হয়নি।

খন্দকার মাহবুব বলেন, সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর বিরুদ্ধে একাত্তরে সালের যে সকল ঘটনার সাথে সম্পৃক্ততার কথা বলা হয়েছে তিনি সে সকল অভিযোগের সংগে জড়িত ছিলেন না। রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে তার বিরুদ্ধে এ মিথ্যা মামলা দেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর বিরুদ্ধে যে সকল স্বাক্ষী আদালতে স্বাক্ষ্য দিয়েছেন তারা কেউই প্রত্যক্ষদর্শী নয়। অতএব এ মামলায় সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী খালাস পাবেন।

এদিকে খন্দকার মাহবুবের বক্তেব্যের বিষয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল সাংবাদিকদের বলেন, সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী একাত্তরে দেশের বাইরে ছিলেন এটা সর্বৈব মিথ্যা।






মন্তব্য চালু নেই