মেইন ম্যেনু

সাজার মেয়াদ শেষ হলেও জেল খাটছেন ৮৪ বিদেশি

সাজার মেয়াদ শেষ হলেও ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন কারাগারে এখনও আটক আছেন ৮৪ বিদেশী নাগরিক। কারা কর্মকর্তাদের ভাষায় এ ধরনের বন্দিকে ‘রিলিজ প্রিজনার’ বলা হয়ে থাকে।

অনুসন্ধানে জানা গেছে এই ৮৪ বন্দির মধ্যে পাঁচজন পাকিস্তানি ও ১ জন নেপালি ছাড়া অধিকাংশই প্রতিবেশী দেশ ভারতের। এর মধ্যে বেশ কিছু বন্দি সাত থেকে আট বছর পর্যন্তও বিনা অপরাধে জেলের ঘানি টানছেন। এমনকি ২০বছর পর্যন্ত জেলে থাকার তথ্যও মিলেছে।

সম্প্রতি এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে কারা অধিদফতরের এআইজি প্রিজনস্ (প্রশাসন) মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, ৮৪ রিলিজ প্রিজনার বিভিন্ন জেলখানায় রয়েছেন। সাজার মেয়াদ শেষ হলেও বিদেশি নাগরিক হওয়ায় তারা মুক্তি পাচ্ছেন না। কারণ বাংলাদেশের ভূখন্ডে ছেড়ে দেয়ার ক্ষেত্রে আইনগত বিধিনিষেধ রয়েছে। তাদের মুক্তি দিতে হলে সীমান্ত বন্দর দিয়ে সংশ্লিষ্ট দেশের দায়িত্বশীল কর্মকর্তাদের হস্তান্তর করতে হবে।

তিনি জানান, রিলিজ প্রিজনারদের অধিকাংশই ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের দরিদ্র পরিবারের সদস্য। এ ধরনের বন্দিদের তালিকা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। কিন্তু পরিবার থেকে সাড়া না পাওয়ায় ওরা জেলে রয়েছেন।

আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, আন্তজার্তিক রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটিসহ কিছু এনজিও প্রতিষ্ঠান পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় থেকে রিলিজ প্রিজনারদের নামের তালিকা সংগ্রহ করে পরিবার পরিজনকে খুঁজে বের করে তাদের মুক্তির ব্যবস্থা করে থাকে।

জানা গেছে বৈধ পাসপোর্ট ও ভিসা ছাড়া কোন দেশের ভূখন্ডে প্রবেশ করা অবৈধ হলেও রিলিজ প্রিজনারদের অধিকাংশই ভুল করে বাংলাদেশে ঢুকে পড়েছিলেন। ফলে লঘু পাপে গুরু দণ্ড পেতে হচ্ছে তাদের।






মন্তব্য চালু নেই