মেইন ম্যেনু

শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলা

সাতক্ষীরার কলারোয়া পৌর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতিসহ দুইজনকে জেল হাজতে প্রেরণ

তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেত্রী ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গাড়ি বহরে হামলা মামলায় সাতক্ষীরার কলারোয়া পৌর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আখলাকুর রহমান শেলীসহ দুই বিএনপি নেতাকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে আদালত।

রোববার বিকেল পৌনে ৫টার দিকে আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন প্রার্থনা করলে জেলা ও দায়রা জজ জোয়ার্দার মো. আমিরুল ইসলাম তাদের জামিন না’মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেয়।
জামিন না’মঞ্জুর হওয়া আরেক আসামি হলেন- কলারোয়া উপজেলার কয়লা গ্রামের লতিফ সানার ছেলে ও বিএনপি নেতা আব্দুস সাত্তার।

সাতক্ষীরা জজ কোর্টের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট ওসমান গনি বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, কলারোয়া উপজেলার হিজলদি গ্রামের জনৈক মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী ধর্ষণের শিকার হলে তাকে দেখতে ২০০২ সালের ৩০ আগস্ট সাতক্ষীরার কলারোয়ায় আসেন তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেত্রী শেখ হাসিনা।

ওই দিন তৎকালীন জেলা বিএনপির সভাপতি হাবিবুল ইসলাম হাবিবের নেতৃত্বে বিএনপির নেতা-কর্মীরা শেখ হাসিনার গাড়ি বহরে হামলা চালায়। এতে তিনি অক্ষত থাকলেও শেখ হাসিনার গাড়ির পতাকা স্ট্যান্ড ভেঙ্গে যায় এবং ৩০ জন নেতা-কর্মী আহত হন।

এ ঘটনায় পুলিশ মামলা না নেওয়ায় আদালতে মামলা করেন কলারোয়া মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শেখ মেসলেম উদ্দিন। আদালতে এই মামলা খারিজ হয়ে গেলে ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে উচ্চ আদালতের নির্দেশে মামলাটি পুনরুজ্জীবিত হয়।

এই মামলায় জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য হাবিবুল ইসলাম হাবিব এবং কলারোয়া পৌর মেয়র ও বিএনপির ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক মো. আকতারুল ইসলাম, পৌর বিএনপির বর্তমান ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আখলাকুর রহমান শেলীসহ ৫০ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেন কলারোয়া থানার ওসি (তদন্ত) সফিকুল ইসলাম।






মন্তব্য চালু নেই