মেইন ম্যেনু

সাতক্ষীরায় এক বিধবার সংবাদ সম্মেলন

সাতক্ষীরায় জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষরা এক বিধবার ছেলের নামে একের পর এক মিথ্যে মামলা দিয়ে হয়রানি করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। জোর পূর্বক জমি দখল নিতে না পেরে তারা মহিলার পরিবারের সদস্যদের নানা ভাবে হুমকি ধামকি দিচ্ছে। রোববার সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন শহরের ইটাগাছা এলাকার মৃত তমেজ উদ্দিনের স্ত্রী মোছাঃ রাবেয়া খাতুন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে রাবেয়া খাতুন বলেন, জমি নিয়ে প্রতিবেশী মৃত দেছের মুহুরীর ছেলে আলম গংদের সাথে দীর্ঘ দিন ধরে তাদের বিরোধ চলে আসছে। ওই জমির এস,এ রেকডীয় মালিক তার শশুর কছিম উদ্দিন সরদার। জমির সকল কাড়জ পত্র তাদের পক্ষে। কিন্তু আলম ও তার অন্য ভাইয়েরা ওই জমি জোর করে দখলে নেয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে। জমির সকল কাগজ পত্র তাদের পক্ষে থাকায় দখল নিতে না পেরে আলম গংরা তার নিজের ও ছেলেদেরকে বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করছে। মিথ্যে মামলা দিয়ে তার ছেলেদের পথে বসানোর চেষ্টা চালাচ্ছে। ইতিমধ্যে তার বড় ছেলে সেলিম বাবু’র নামে কমপক্ষে ২০টি মিথ্যে মামলা দিয়েছে। এখন তারা বাবুকে জেএমবি’র মামলায় জড়ানোর চেষ্টা করছে।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় পাক সেনারা দেছের মুহুরীর বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছিল। অথচ মুক্তিযুদ্ধের সেই বিরোধিতাকারিরা এখন মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষে কথা বলে তাদের মত নিরিহ মানুষকে হয়রানি করছে। আলম গংরা তাকে ও তার ছেলেদেরকে ফের মিথ্যে মামলায় জড়ানোর পাশাপাশি হত্যার হুমকি দিচ্ছে।

তিনি মুক্তিযুদ্ধের বিরোধীতাকারি পরিবারের সদস্য আলম গংদের অত্যাচার ও নির্যাতনের হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার পাশাপাশি মিথ্যে মামলার দায় থেকে তার ছেলেদের অব্যহতি দেয়ার জন্য সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।






মন্তব্য চালু নেই