মেইন ম্যেনু

সাতক্ষীরায় পুরোহিতকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা

সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ব্রহ্মরাজপুর বিরিশিরি রাধাগোবিন্দ মন্দিরের পুরোহিত ভবসিন্ধু ধরকে (৪৮) আজ শনিবার ভোররাত সাড়ে তিনটার দিকে কুপিয়ে হত্যা করার চেষ্টা চালানো হয়েছে।

পুরোহিতের স্ত্রী সুমিত্রা ধরের ভাষ্য, সাত-আটজনের একদল দুর্বৃত্ত ওই মন্দিরে পাহারায় থাকা দুই চৌকিদারকে বেঁধে ফেলে পুরোহিতকে ডাক দেয়। পুরোহিত ঘর থেকে বের হওয়া মাত্র দুর্বৃত্তরা তাঁকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপাতে থাকে। এ সময় ঘর থেকে বের হয়ে পুরোহিতের স্ত্রী চিৎকার শুরু করেন। আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়।

সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমদাদুল হক শেখ বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, হত্যাচেষ্টার এক ঘণ্টা আগে দুর্বৃত্তরা রামচন্দ্রপুরে আব্দুল মাজেদের বাড়িতে ডাকাতি করে। সেখানে অস্ত্রের মুখে সবাইকে জিম্মি করে দুর্বৃত্তরা স্বর্ণালংকার ও টাকা লুট করে। এরপর তাঁরা পুরোহিতকে হত্যা করার চেষ্টা চালায়।

ওসি এমদাদুল হক শেখ বলেন, দুর্বৃত্তদের পরনে হাফপ্যান্ট ও গায়ে গেঞ্জি ছিল।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পুরোহিতকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। পুরোহিতের বুক, পিঠ ও হাতে মারাত্মক জখমের চিহ্ন রয়েছে। ভোর সাড়ে পাঁচটা থেকে সকাল পৌনে আটটা পর্যন্ত অস্ত্রোপচার চলে। সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের চিকিৎসক হাসানুজ্জামান জানান, পুরোহিতের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাঁকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

খুলনা রেঞ্জের পুলিশের উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মনিরুজ্জামান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, যারা দেশকে অকার্যকর করতে চায়, তারাই এই কাজ করেছে। গতকাল শুক্রবার ঝিনাইদহে সেবায়েত হত্যার সঙ্গে এ ঘটনার মিল রয়েছে।

ডিআইজি জানান, এ ঘটনায় এখনো মামলা হয়নি। সাতক্ষীরায় পুলিশ ও বিডিআর অভিযান শুরু করেছে।






মন্তব্য চালু নেই