মেইন ম্যেনু

সাতক্ষীরায় স্টুডেন্টস্ কেবিনেট নির্বাচন সম্পন্ন

সাতক্ষীরায় উৎসব মুখর পরিবেশে বল্লী মোঃ মুজিবুর রহমান মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে স্টুডেন্টস্ কেবিনেট নির্বাচন-২০১৫ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শিশুকাল থেকে গণতন্ত্রের চর্চা এবং গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়া সহ ৭টি উদ্দেশ্য নিয়ে শিশু কিশোর ছাত্রদের মধ্যে এ নির্বাচনের উদ্যোগ নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রনালয়। সারাদেশের ন্যায় বল্লী মোঃ মুজিবুর রহমান মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে সকাল ৮টায় শুরু হয় ভোট গ্রহন। ৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেণির সকল ছাত্র-ছাত্রী তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করে।

নির্বাচিত কেবিনেটে সদস্য থাকবেন ৮ জন। স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচনে জাতীয় নির্বাচনের মতোই ব্যালট বাক্স, ব্যালট পেপার, ভোট কেন্দ্র রয়েছে। ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা ভোটার তালিকাভূক্ত হয়েই এ নির্বাচনে অংশ নিয়েছে। প্রত্যেক ভোটার প্রত্যেক শ্রেণিতে একটি ও সর্বোচ্চ তিনটি শ্রেণিতে দুটি করে মোট ৮টি ভোট দিতে পারবে। প্রত্যেক শ্রেণি থেকে একজন করে পাঁচটি শ্রেণি থেকে ৫ জন এবং পরবর্তী সর্বোচ্চ ভোটপ্রাপ্ত তিন শ্রেণি থেকে আরো ৩ জন নিয়ে ৮ জনের স্টুডেন্টস কেবিনেট গঠিত হয়েছে। এ কেবিনেটের মেয়াদ হবে এক বছর। মন্ত্রিপরিষদ শাসিত সরকারের আদলে হবে স্টুডেন্টস কেবিনেট।

বল্লী মোঃ মুজিবুর রহমান মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন ১০ম শ্রেণির ছাত্র মোস্তাকিন হোসেন (রাসেল), নির্বাচন কমিশনার ৯ম শ্রেণির ছাত্রী সঞ্জিতা শর্মা ও ৮ম শ্রেণির ছাত্রী রুমা পারভীন। প্রিজাইডিং অফিসারের দায়িত্ব পালন করেন আলামিন হোসেন, মেহেদী হাসান, সবুজ হোসেন, সেলিম হোসেন, ওবায়দুল্লাহ, রিফাত রায়হান, মাসুদ রানা, মেহেদী হোসেন ও তৌফিকুজ্জামান।
নির্বাচন চলাকালীন ভোট কেন্দ্র পরিদর্শন করেন সদর উপজেলা শিক্ষা অফিসার জয়নাল আবদীন, বল্লী মোঃ মুজিবুর রহমান মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুর রজ্জাক, সমন্বয়কারী জামিলুজ্জামান, ম্যানেজিং কমিটির সদস্য তাহজিবুল হক, আবু মোত্তালিব, সহকারী প্রধান শিক্ষক গোলাম কাদের প্রমুখ।

বল্লী মোঃ মুজিবুর রহমান মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচনের ফলাফলে বিজয়ী হয়েছে ৬ষ্ট শ্রেণি থেকে শিমুল হোসেন, সপ্তম শ্রেণি থেকে খালিদ বিন ওয়ালিদ, ৮ম শ্রেণি থেকে কবির হোসেন, ৯ম শ্রেণি থেকে সাউিল ইসলাম, ১০ম শ্রেণি থেকে মঞ্জুরুল আলম। এছাড়া ৮ম শ্রেণি থেকে হাবিবুল্লাহ, ৭ম শ্রেণি থেকে আলাউদ্দীন এবং ১০ম শ্রেণি থেকে আবু রায়হান।






মন্তব্য চালু নেই