মেইন ম্যেনু

সাত কোটিতেও ক্যাটরিনায় নারাজ সালমান

এক সময় তিনিই ছিলেন ক্যাটরিনা কাইফের ফ্রেন্ড, ফিলোসফার অ্যান্ড গাইড। অবশ্য আজ সবই অতীত। প্রেমিকা ‘প্রাক্তন’ হয়ে গেছেন, তাই তার সঙ্গে পর্দায় আর কোনও কাজেই আগ্রহী নন সালমান খান। বিনা দ্বিধায় ফিরিয়ে দিয়েছেন বিশাল অংকের টাকার প্রস্তাবও।

সম্প্রতি ক্যাটরিনার সঙ্গে একটি বাণিজ্যিক বিজ্ঞাপনের শ্যুটিংয়ের জন্য ৭ কোটি টাকার অফার পেয়েছিলেন সালমান। কিন্তু সিদ্ধান্তে অটল। শোনা যাচ্ছে, এমন প্রস্তাবে ক্যাটরিনা উচ্ছসিত হলেও সাল্লু ভাই ছিলেন নিস্পৃহ। প্রথম পদক্ষেপেই ক্যাটরিনার নাম শুনে লোভনীয় প্রস্তাব প্রত্যাখান করেছেন বলিউডি ব্যাড বয়।

কিন্তু প্রেম কিংবা প্রেমিকার ব্যাপারে যথেষ্ট খোলামেলা হিসেবেই পরিচিত ছিলেন সালমান খান। প্রাক্তন, বর্তমান বা ভবিষ্যৎ প্রেমিকাদের বিপদে আপদে সবসময় পাশে দাঁড়ান তিনি। প্রেমটা ভেঙে গেলেও ক্যাটরিনার সঙ্গে তার সহজ সম্পর্ক। রণবীর-ক্যাটরিনার দ্বীপপুঞ্জ অভিসারে বিকিনি বিতর্কে সংবাদমাধ্যমের হাত থেকে প্রাক্তন প্রেমিকাকে সালমানই বাঁচান।

খান খান্দানের রাজকন্যা অর্পিতার বিয়েতেও ক্যাটরিনার সঙ্গে খুনসুটিতে মেতে ওঠেন সালমান। প্রকাশ্যেই বলেন, ‘তোমাকে সুযোগ দিয়েছিলাম খান হওয়ার, কিন্তু তুমি কপূর হতে চাইলে’। ক্যাটরিনা কিছুটা বিব্রত হলেও সামলে নেন সালমান খান। তাহলে এত কিছুর পরও ক্যাটরিনার সঙ্গে কাজ করতে আপত্তি কেন তার?

তবে কি জনসমক্ষে সপ্রতিভ থাকলেও কাজের ক্ষেত্রে ক্যাটরিনার সঙ্গে দূরত্ব রক্ষা করতে চান সালমান?

আসলে জনসমক্ষে সপ্রতিভ থাকলেও কাজের ক্ষেত্রে ক্যাটরিনার সঙ্গে দূরত্ব রক্ষা করতে চান সলমন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, ‘একটা সময় আমার বন্ধু ছিলো, কিন্তু এখন তো অন্য কারো সঙ্গিনী। আমি চাইনা পুরানো সম্পর্কের ছায়া তার নতুন জীবনে পড়ুক। আমার সঙ্গে যােগাযোগ থাকার কারণে ক্যাটরিনা অসম্মানিত হোক- তা চাইনা।’1650748






মন্তব্য চালু নেই