মেইন ম্যেনু

সাত দিনে দেহের জড়তা দূর করতে সাতটি টিপস

বেশ কিছুদিন ক্লান্ত-অবসন্ন হয়ে দিন কাটাচ্ছেন? কোনোভাবেই উদ্যম ফিরে পাচ্ছেন না? সাতটি কাজের মাধ্যমে আপনি হয়ে উঠবেন আগের মতোই প্রাণবন্ত ও উচ্ছল। কাজগুলো হচ্ছে –

১. সকালে উঠুন ও ব্যায়াম করুন: প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে ওঠা দারুণ এক অভ্যাস। নিয়মিত কাজ শুরুর বেশ আগে ওঠে ব্যায়াম করুন। নিয়মিত সকালে ওঠে ঘাম ঝরানোর পর দেখবেন আপনি হারানো শক্তি ফিরে পেয়েছেন।

২. স্বাস্থ্যকর নাশতা খান: এরপর একটা গোসল দিয়ে ফ্রেশ হয়ে নিন আর ঝাঁপিয়ে পড়ুন নাশতার টেবিলে। স্বাস্থ্যকর ভরপেট নাশতা আপনাকে গোটা দিনের শক্তি জোগাবে। রকেটের গতিতে ছুটতে চাইলে প্রোটিনসমৃদ্ধ নাশতা খান।

৩. দাঁত মাজুন: দাঁত মাজার সঙ্গে ফ্রেশ অনুভূতির একটি সম্পর্ক রয়েছে। মুখের অভ্যন্তরের স্বাস্থ্য দৈহিক ও মানসিক স্বাস্থ্যের সঙ্গে সরাসরি যুক্ত। ভালো করে দাঁত মাজুন ও মাউথ ওয়াস ব্যবহার করুন। দাঁত থাকবে মজবুত, মনটাও থাকবে ভালো।

৪. ভারোত্তলন করুন: ব্যায়ামের অংশ ওজন উঠানোর কাজটি সাত দিনের জন্য নিয়মিতভাবে করুন। দেহের গঠনকে আদর্শ করতে, বিপাক ক্রিয়াকে সুষ্ঠু করতে এবং হাড়কে মজবুত করতে এ কাজের তুলনা নেই। অভ্যাস না থাকলে তিন থেকে আট পাউন্ডের ওজন তুলুন। টানা কয়েক মিনিট করতে পারলেই দেহের ম্যাজমেজে ভাব গায়েব হয়ে যাবে।

৫. ম্যানিকিউর করে নিন: নখের ময়লা পেটে গেলে সহজেই অসুস্থ হতে পারেন। নখ বড় থাকলে কাটুন ও নিয়মিত পরিষ্কার করুন। অদ্ভুত হলেও সত্য, মনটা ভালো লাগবে এবং মনে একটা ফ্রেশ ভাব আসবে। মেয়েরা নখ পরিষ্কার করে পছন্দের রঙের নেইল পলিশ দিতে পারেন।

৬. সবুজ খাবার খান: রং মেশানো সবুজ খাবার নয়, টাটকা শাক-সবজি খান নিয়মিত। সকাল-দুপুর-রাত তিন বেলাতেই খাবারের সঙ্গে সবুজ রাখার চেষ্টা করুন। এতে আপনার এনাজির ঘাটতি হবে না। এর রকমারি স্বাদ আপনাকে আনন্দ দেবে ও সবল বোধ করবেন।

৭. দ্রুত বিছানায় যান: সকালে ঘুম থেকে উঠতে হলে বিছানায় দ্রুত যেতে হবে। কাজেই সব কাজ সময় থাকতেই সেরে ফেলুন। ঘুম না এলেও একটু আগেভাগেই বিছানায় চলে যান। অভ্যাস হয়ে যাবে এবং জম্পেশ ঘুম হলে শরীরটা ঝরঝরে লাগবে। সাত দিনের মধ্যে ঘুমের সময়টা অভ্যাস করে নিতে পারলে আপনার আর কখনো মনমরা লাগবে না।






মন্তব্য চালু নেই