মেইন ম্যেনু

সাদা চুল কালো করে ফেলুন ৫টি কার্যকরী উপায়ে

কথায় আছে “কুড়িতে বুড়ি”। কেউ কি কুড়িতে বুড়ি হতে চায়? কেউ চায় না। এই বয়স ধরে রাখার জন্য কত শত চেষ্টা। অথচ চুল সব চেষ্টাকে বৃথা করে দিচ্ছে। বয়স হওয়ার আগেই চুলগুলো পেকে যাচ্ছে। অকালে চুল পাকা সমস্যা আজকাল ছেলে-মেয়ে সবারই হয়ে থাকে। ছেলেরা কাঁচা-পাকা চুল নিয়ে বয়সের তুলনায় ভারিক্কি একটা ভাব নিয়ে ঘুরে বেড়ালেও মেয়েদের জন্য এটা বিড়ম্বনা ছাড়া আর কিছুই না! আর এই পাকা চুলের হাত থেকে রেহাই পাওয়ার জন্য কলপের সাহায্য নিয়ে থাকেন অনেকেই।

চুলের রং নির্ভর করে হরমোন মেলানিনের ওপর। বয়স বাড়ার সাথে সাথে শরীরের মেলানিন তৈরির ক্ষমতা কমে আসে বলেই বৃদ্ধ বয়সে চুল পেকে থাকে। আর কম বয়সে চুল পাকার অন্যতম কারণ হল জিন বা বংশগতির প্রভাব। কারণ যেটাই হোক, অকালে চুল পাকার সমস্যা কি আপনারও হচ্ছে? তাহলে কলপ বা হেয়ার ড্রাই ব্যবহার না করে প্রাকৃতিকভাবে সাদা চুল কালো করে ফেলুন। জেনে নিন উপায় আজকের ফিচারে।

১। আমলকি

একটি পাত্রে নারকেল তেল নিন। এরসাথে শুকনো আমলকি বা আমলকির গুঁড়ো দিয়ে জ্বাল দিন। ঠাণ্ডা হয়ে গেলে এই তেলটি চুলে ব্যবহার করুন। সারা রাত এভাবে রাখুন। এটি সপ্তাহে একবার বা দুইবার ব্যবহার করুন। এছাড়া এক টেবিল চামচ আমলকির পেস্ট এবং লেবুর রস মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। এটি চুলে ভাল করে ম্যাসাজ করুন। এভাবে সারা রাত রাখুন। পরের দিন শ্যাম্পু করে ফেলুন।

২। পেঁয়াজ এবং লেবুর রস

তিন চা চামচ পেঁয়াজের রস এবং দুই চা চামচ লেবুর রস মিশিয়ে নিন। এটি চুলের তালুতে ভাল করে লাগান। ৩০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে ফেলুন। এটি সপ্তাহে ৩ থেকে ৪ বার ব্যবহার করুন।

৩। তিল এবং বাদামের তেল

তিলের তেল এবং বাদামের তেলের মিশ্রণ চুল পাকা রোধ করে থাকে। বাদামের তেলের সাথে তিলের বীজ দিয়ে পাঁচ-সাত মিনিট ধরে গরম করুন। চুলা থেকে নামিয়ে তেলটা ঠান্ডা হতে দিন। তেল ঠাণ্ডা হলে চুলের গোড়ায় ঘষে ঘষে সারা মাথায় মাখুন। আধা ঘণ্টা রেখে দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এমনকি চাইলে এই তেল সারা রাতও রেখে দিতে পারেন। পরদিন সকালে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।

৪। কারি পাতা

কারি পাতা চুলের পিগমেনটেশনকে আরও বেশি কালো করে থাকে। এক টেবিল চামচ নারকেল তেলে কিছু পরিমানের কারি পাতা দিয়ে জ্বাল দিন। এটি চুলে ভাল করে ম্যাসাজ করুন। ৩০ থেকে ৪৫ মিনিট পর শ্যাম্পু করে ফেলুন। সপ্তাহে এক থেকে দুইবার করুন।

৫। ব্ল্যাক কফি

দ্রুত সাদা চুল কালো করতে চাইলে ব্ল্যাক কফি অতুলনীয়। তরল ব্ল্যাক কফি দিয়ে চুলের গোঁড়া থেকে আগা পর্যন্ত ধুয়ে নিন। এটি স্থায়ীভাবে চুল কালো না করলেও কিছু সময়ের জন্য চুল কালো করে থাকবে।

কলপ ব্যবহারে পরিবর্তে এই ঘরোয়া উপায়গুলো ব্যবহার করে দেখতে পারেন। এই উপায়গুলো আপনার চুলকে কালো করতে সাহায্য করবে।






মন্তব্য চালু নেই