মেইন ম্যেনু

সাবধান, ফেসবুকে এভাবে আপনিও ফাঁদে পড়তে পারেন

শুধুমাত্র একটু সহানুভূতির আশাতেই নাকি সে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠিয়েছি। কারণ সে ক্যানসার পেসেন্ট। আর তাই নিজের মনকে ভালো রাখতেই এই ফাঁদ তৈরি করা।

প্রথম থেকে গল্পের প্লটটা ঠিকঠাক সাজিয়েও আর শেষ রক্ষা হল না ভোপালের মনু নামে এক যুবকের। অবশেষে খুনের দায়ে তাকে গ্রেফতার করা হল। এখন তার ঠাঁই হয়েছে শ্রীঘরে।

ঘটনার সূত্রপাত কয়েক মাস আগে। মনু নিজেকে ক্যানসার আক্রান্ত বলে দাবি করেছিল সেদিন। আর সেই ফাঁদেই পা দিয়ে তার ফ্রেন্ড রিকোয়েস্টটা গ্রহণ করেন নার্সিংয়ের ওই ছাত্রী। প্রথমটায় সহানুভূতির উপরেই চলছিল গোটা সম্পর্কটা।

কিন্তু, কয়েকদিন গড়াতেই নিজের আসল রূপ দেখাতে শুরু করে দেয় মনু। তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক গরে তোলার জন্য ওই তরুণীকে ক্রমাগত জোর করতে থাকে সে। রাজি না হওয়ায় তাঁকে অ্যাসিড দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়ারও হুমকি দেয়।

গোটা ঘটনাটি ওই তরুণী নিজের এক বন্ধুকে জানান। এরপর মনুকে ওই বন্ধু পুলিসের ভয় দেখানোর পর ক্ষমা চেয়ে নেয় মনু। তাঁদের সঙ্গে দেখাও করতে চায়। দেখা করতে গেলে তরুণীর ওই বন্ধুকে অপহরণ করে খুন করে অভিযুক্ত। এরপই তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।






মন্তব্য চালু নেই