মেইন ম্যেনু

সাবধান! ফেসবুকে যা করছেন তা আর গোপন থাকবে না

বর্তমান সময়ে ফেসবুক আমাদের নিত্য সঙ্গী হয়ে উঠেছে। বাসা বা অফিস, রাস্তা বা রেম্তোরা, সর্বত্রই এখন একটাই সঙ্গী ফেসবুক। এখানে আমরা নিজেদের মত করে নানা পোষ্ট করে থাকি। কেউ কেউ আবার বিশেষ মুহূর্তটা সাথে সাথেই ছড়িয়ে দিই বন্ধুদের মাঝে। আবার অনেকের লেখা ও ছবিতেও মন্তব্য ও লাইক করছি।

কিন্তু এখন থেকে একটু সাবধানে ফেসবুকে পোস্ট এবং ছবি লাইক করেন। কারণ আপনি কী কী ছবি লাইক করছেন তা জেনে যেতে পারেন অন্যরা, শুধু তাই নয় ডাউনলোডও করে ফেলতে পারেন আপনার লাইক দেওয়া সমস্ত ছবি।

ফেসবুকে ইউজারদের প্রাইভেসি ক্রমশই কমছে। সম্প্রতি একটি নতুন ফিচার যোগ হয়েছে এই অ্যাপে যার ফলে যে কোনও ইউজার ফেসবুকে লগ ইন করে অন্য যে কোনও ইউজারের অ্যাক্টিভিটি ট্র্যাক করতে পারেন। ফেসবুক সার্চ বারে যদি ‘photos/posts liked by (user name)’ টাইপ করা হয় তবে যাঁর নামে সার্চ করা হচ্ছে তিনি এযাবৎ ফেসবুকে যত পোস্ট এবং ছবিতে লাইক দিয়েছেন তার একটি লম্বা তালিকা খুলে যাবে। শুধু তাই নয় সেই ছবিগুলি ডাউনলোডও করা যাবে।

অর্থাৎ ইচ্ছে করলেই কেউ খুঁজে দেখতে পারেন যে আপনি কোন ইউজারদের ছবি লাইক করেছেন অথবা কী ধরনের পোস্ট লাইক করেছেন। তবে তার জন্য সেই ব্যক্তিকে আপনার ফ্রেন্ড লিস্টে থাকতে হবে। ফ্রেন্ড লিস্টে না থাকলে এই কীর্তিটি করা যাবে না। তবে চেনা কারও উপর আড়াল থেকে নজরদারি করতে চাইলে তার পথ প্রশস্ত করে দিল এবার ফেসবুক। বহু মানুষ এর সুযোগ নিয়ে কারও ফ্রেন্ড লিস্টে থাকা অন্যান্য প্রোফাইলের ব্যক্তিগত ছবি ডাউনলোড করে ফেলবেন। অপরাধীরা এর সুযোগে বহু ব্যক্তিগত তথ্যও জেনে যাবে।

সবচেয়ে সমস্যার কথা, এই বিশেষ ফিচার থেকে মুক্তি পাওয়ার কোনও উপায় রাখেনি ফেসবুক। এখনও পর্যন্ত এমন কোনও প্রাইভেসি সেটিং অপশন আসেনি যাতে এই ট্র্যাকিং আটকানো যায়। কেউ তো আর রাতারাতি সবাইকে আনফ্রেন্ড করে দিতে পারেন না। তাই এবার থেকে নতুন ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট অ্যাকসেপ্ট করার সময়ে বুঝে-শুনে করবেন আর অন্যের ছবিতে লাইক দেওয়ার সময়েও দু’বার ভাববেন।






মন্তব্য চালু নেই