মেইন ম্যেনু

সাভারে এক কক্ষ থেকে ৩ কিশোরের মরদেহ উদ্ধার

টিপু সুলতান (রবিন), সাভার প্রতিনিধি : সাভারে একটি ডেইরি ফার্মের ভিতরের থাকার ঘরের একটি কক্ষে থেকে তিন কিশোরের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মরদেহগুলো ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। তবে কি কারনে তাদের মৃত্যু হয়েছে সে বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

মরদেহ উদ্ধার করা কিশোররা হলো- ওই ডেইরি ফার্মের কর্মচারী জিয়াউর রহমানের ছেলে নাছির ও জীবন। এবং তাদের চাচাতো ভাই শাহাদাৎ। তাদের সবার বয়স ১৪-১৬ বছরে মধ্যে।

শনিবার সকালে সাভারের হেমায়েতপুরের প্রান্ত ডেইরি ফার্মের ভিতরের থাকার ঘরের একটি কক্ষ থেকে ওই তিন কিশোরের মরদেহগুলো উদ্ধার করা হয়।

ঢাকা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাসেল শেখ লাশ গুলো উদ্ধারের ব্যপাটি নিশ্চিত করে আওয়ার নিউজ বিডিকে জানান, সাভারের হেমায়েতপুর এলাকয় প্রান্ত ডেইরি ফার্মের ভিতরে ওই ফার্মের কর্মচারী জিয়াউর রহমানের থাকার ঘরেরে পাশের একটি কক্ষ থেকে স্থানীয়দের তথ্যের ভিত্তিতে খবর পেয়ে মরদেহগুলো উদ্ধার করা হয়। পরে ময়না তদন্তের জন্য মরদেহগুলো ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

তবে কি কারনে অথবা কিভাবে তাদের মৃত্যু হয়েছে সে বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলতে না পারলেও পুলিশের এই কর্মকর্তা জানান, ময়না তদন্তের রিপোর্ট পাওয়া গেলেই বুঝা যাবে কি কারনে তাদের মৃত্যু হয়েছে।

পুলিশ সুপার রাসেল শেখ আরও জানান,প্রথমিক ভাবে সুরতাল দেখে পুলিশের ধারণা কোন প্রকার বিষাক্ত খাবার বা মাদক গ্রহনের কারনেও কিশোর গুলো মারাযেতে পারে।

অন্যদিকে এলাকাবাসীর ধারণা রাতে ঝড়ের সময় বজ্রপাতের কারনে জীবন,নাসিরও শাহাদাত মারা গিয়েছে।

জীবন ও নাছির হেমায়েতপুরের একটি গ্যারেজে কাজ করতো। এবং শাহাদাৎ স্থানীয় একটি খাবার হোটেলে কাজ করে তাদের সাথে চাচা জিয়াউর রহমানের সাথে প্রান্ত ডেইরি ফার্মের ভিতরে থাকতো।






মন্তব্য চালু নেই