মেইন ম্যেনু

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ৫ কাজ কখনোই করবেন না

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমরা সামাজিকভাবে যুক্ত হচ্ছি অসংখ্য নতুন-পুরনো মানুষের সাথে। সম্পর্ক অটুট রাখতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম অনেক বড় ভূমিকা পালন করছে। আবার এই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম আমাদের একান্ত পারিবারিক ও ব্যক্তিগত সম্পর্কে ফাটল ধরাচ্ছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম প্রেমের সম্পর্ক তৈরি ও অক্ষুণ্ন রাখতে অসাধারণ ভূমিকা যেমন রাখছে তেমনি অনেক সম্পর্ক ভাঙ্গনের ক্ষেত্রেও ভূমিকা রাখছে। আপনার ব্যক্তিগত ও পারিবারিক জীবন সুন্দর রাখতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ পাঁচটি ভুল করা থেকে বিরত থাকুন।

১. অতিরিক্ত তথ্য শেয়ার
অনেকে ফেসবুকে তার নিজের ও পরিবারের প্রায় সব তথ্য প্রকাশ করে ফেলে। এটা সম্পর্কের জন্য ধ্বংসাত্মক হতে পারে। প্রিয়জনের সাথে রাতের বেলা খেতে বের হয়েছেন তার এক-দুটা ছবি শেয়ার করা যেতে পারে। কিন্তু অফলাইনে আপনি যা করছেন তার সব ছবি দেয়ার দরকার নেই। আপনার হয়তো শেয়ার করতে ভালো লাগছে কিন্তু আপনার সঙ্গীর তো ভালো লাগতে নাও পারে!

২. বেশি খবরদারি করবেন না
এটা একেবারেই অ-রোমান্টিক বিষয় আপনি আপনার সঙ্গীর সকল কর্মকাণ্ড অনুসরণ করছেন। আপনার সঙ্গী কি পোস্ট করছে বা কার পোস্টে কমেন্ট করছে, লাইক করছে সব বিষয় অনুসরণ করলে সম্পর্ক শীঘ্রই তেতো হয়ে যেতে পারে। প্রত্যেকেরই আলাদা আলাদা স্পেইস থাকা দরকার।

৩. নিজেদের ঝগরাঝাটি অনলাইনে নিয়ে আসবেন না
অফলাইনে বা নিজেদের মধ্যে আপনাদের মধ্যে কোন বিষয়ে মতবিরোধ বা ঝগরাঝাটি হয়েছে। সেটা ঘরেই মিটমাট করে ফেলা ভালো। এখন অন্দরমহলের ঝগড়া যদি অনলাইনে নিয়ে আসেন তাহলে সেটা আপনাদের দুজনের জন্যেই ভয়ানক বিপর্যয় নিয়ে আসবে।

৪. সাবেক প্রেমিক-প্রেমিকার সাথে ফ্লার্ট করবেন না
আপনার কাছে ব্যাপারটা লোভনীয় হতে পারে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের মাধ্যমে পুরনো বন্ধু ও প্রেমিক-প্রেমিকার সাথে যুক্ত হওয়ার ভালো সুযোগ রয়েছে। আপনি আপনার সাবেক বয়ফ্রেন্ড বা গার্লফ্রেন্ডের সাথে যুক্ত হতেই পারেন কিন্তু তার সাথে নিয়মিত টাংকি মারলে চতুর্মুখী ঝামেলায় পড়বেন। এটা আপনার বর্তমান সম্পর্ককে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে আবার আপনার সাবেক এর সম্পর্কও ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে। তাই পুরনো প্রেমিক বা প্রেমিকার সাথে অতিরিক্ত ফ্লার্ট করা থেকে বিরত থাকুন।

৫. মিথ্যা বলবেন না
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজেকে নিয়ে, আপনার সঙ্গীকে নিয়ে, পরিবার বা অন্য কিছু নিয়ে মিথ্যা বললে সঙ্গীর কাছে ধরা খেয়ে যাবেন। তার কাছে আপনার অবস্থান দুর্বল করে দিতে পারে। যেমন ধরেন আপনি আপনার সঙ্গীর কাছে বলছেন কোন এক জরুরি কাজে ব্যস্ত আছেন অথচ অন্য বন্ধুদের সাথে জমিয়ে আড্ডা মারছেন, খানাপিনা করছেন-সেটা সঙ্গীর কাছে কেমন লাগবে? বা একই অবস্থানে আপনার কাছে কেমন লাগবে?

সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া






মন্তব্য চালু নেই