মেইন ম্যেনু

সাম্প্রতিক জঙ্গিকাণ্ড: স্কলারশিপের ভিসা পাচ্ছে না শিক্ষার্থীরা

সাম্প্রতিক সময়ে জঙ্গিবাদের মতো নারকীয়কাণ্ডে শিক্ষার্থীদের জড়িয়ে পড়ার ঘটনায় কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা স্কলারশিপের ভিসা পাচ্ছেন না বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান।

বুধবার (২৭ জুলাই) রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে আয়োজিত ‘সন্ত্রাসবাদ বন্ধে আলিমদের করণীয়’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান আলোচকের বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

আবদুল মান্নান বলেন, ‘ঘটে যাওয়া জঙ্গিকাণ্ডে দেশে-বিদেশে বাংলাদেশের সুনাম ক্ষুণ্ন হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে শিক্ষাব্যবস্থার সুনামও। এসব ঘটনার কারণে বর্তমানে কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বিদেশে পড়তে যাওয়ার জন্য স্কলারশিপের ভিসা পাচ্ছে না।’

বাংলাদেশে সূফী-সাধকদের মাধ্যমে ইসলামের প্রচার হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘সূফী-সাধকদের সুন্দর-শান্তির বাণীতে মানুষ ইসলাম ধর্মে দীক্ষিত হয়েছে। এদেশে তরবারির মাধ্যমে কখনোই ইসলাম প্রতিষ্ঠিত হয়নি। যারা এসব করছে, তারা ইসলাম প্রতিষ্ঠার জন্য নয়, বরং ইসলামের অপব্যাখ্যা দিয়ে মুসলমানদের সম্পর্কে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে।’

ইউজিসি চেয়ারম্যান বলেন, ‘আগে সবার একটা ধারণা ছিল, মাদরাসার শিক্ষার্থীরা জঙ্গিবাদে জড়িয়ে পড়ে। কিন্তু অতিসম্প্রতি ঘটে যাওয়া ঘটনাগুলো আগের ধারণাকে ভুল প্রমাণিত করেছে। এখন আমরা দেখলাম- উচ্চবিত্ত-ইংলিশ মিডিয়াম, নামি-দামি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা জঙ্গিবাদের সঙ্গে লিপ্ত। এখন এসব সমস্যাকে ভিন্ন আঙ্গিকে ভাবতে হবে।’

‘কোথাও হামলার ঘটনা শুনলে ভয়ে থাকি। আর দোয়া করতে থাকি হামলাকারী যাতে মুসলমান না হয়। মধ্যপ্রাচ্যে এমন অনেক নাম আছে যা হুবহু মুসলমানদের মতো। অথচ তাদের ধর্ম ভিন্ন। যখন জানা যায় হামলাকারীর নাম মুসলমানদের নামের মতো, তখন মুসলমানদেরই হামলাকারী বলে দোষ দেয়া হয়। মুসলমানকেই হামলাকারী বলে চিহ্নিত করা হয়’- বলেন আবুদল মান্নান।

এ সময় তিনি মসজিদের খতিবদের সমালোচনা করে বলেন, ‘সাধারণত শুক্রবারে জুম্মার নামাজের আগে এবং ঈদ জামাতের আগের বয়ানে ইসলামিক দৃষ্টিকোণ থেকে পারিবারিক-সামাজিক-রাজনৈতিক ইত্যাদি বিষয়াদি নিয়ে আলোচনা হয়ে থাকে। আমি দেখেছি- কিছু কিছু খতিব আছেন যারা তাদের বক্তব্যে অবাস্তব অপ্রাসঙ্গিক কথা বলেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘ইমাম হবেন জ্ঞানী এবং ব্যক্তিত্ববান। হিন্দুদের পুরোহিত ব্রাহ্মণ ছাড়া হতে পারবে না বলে একটি নিয়ম আছে। আমাদের সেরকম কোনো নিয়ম নেই। ইসলামে যিনি জ্ঞানী, নেতৃত্ব দানে যোগ্য ও চরিত্রবান এমন মানুষকেই ইমাম নির্বাচন করার বিধান আছে।’

যারা ইমাম তাদেরকে বিষয়গুলো বিবেচনা করার পরামর্শ দেন ইউজিসি চেয়ারম্যান।

ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত সভায় বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আহসান উল্লাহর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন- শিক্ষাসচিব মো. সোহরাব হোসাইন, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) এএস মাহমুদ ও অতিরিক্ত সচিব (বিশ্বদ্যিালয়) মো. হেলাল উদ্দিন।

সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান, বাংলাদেশ মাদরাসা বোর্ডের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান অধ্যাপক একেএম ছায়েফ উল্লাহ, মাদরাসা শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. বিল্লাল হোসেন ও বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদার্রেছীন বাংলাদেশ’র মহাসচিব শাব্বীর আহমদ মোমতাজী প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই