মেইন ম্যেনু

সার্ক সম্মেলন বর্জন অগ্রহণযোগ্য : দুদু

কাশ্মির ইস্যুকে কেন্দ্র করে ভারতকে সমর্থন জানিয়ে বাংলাদেশ সার্ক সম্মেলন বর্জন করেছে- এমন যুক্তি তুলে ধরে বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু সম্মেলন বর্জনের বিষয়টিকে অগ্রহণযোগ্য বলে মন্তব্য করেছেন।

অবশ্য বাংলাদেশ সরকার কখনোই বলেনি তারা কাশ্মির ইস্যুকে কেন্দ্র করে এবারের সার্ক সম্মেলন বর্জন করেছে। শুক্রবারও ভারতের দ্য হিন্দুকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, পাকিস্তানের সার্বিক পরিস্থিতি এবং বাংলাদেশে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার নিয়ে নাক গলানোর কারণেই সার্ক সম্মেলনে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সার্ক সম্মেলন বয়কট করার ক্ষেত্রে ভারতের সিদ্ধান্তের সঙ্গে বাংলাদেশের কোনো যোগসূত্র নেই।

শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের হলরুমে জাতীয়তাবাদী দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলন আয়োজিত ‘সার্ককে অকার্যকর করার চক্রান্ত রুখে দাঁড়াও শীর্ষক’ এক সভায় দুদু বলেন, ‘সার্ক সম্মেলন বাংলাদেশের মত ছোট দেশগুলোর জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু ভারত ও পাকিস্তানের কাশ্মির ইস্যুকে কেন্দ্র করে দ্বন্দের কারণে ভারত সার্ক সম্মেলন থেকে সরে দাঁড়িয়েছে। পাশাপাশি বাংলাদেশ তাতে সমর্থন জানিয়েছে; যা কখনও গ্রহণযোগ্য হতে পারে না।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, সার্ক সম্মেলেন মতো প্রতিষ্ঠিত সংগঠনের সম্মেলন বর্জন করে অন্য সংস্থার সম্মেলনে যাওয়ার কোন অর্থই হয় না।

চীনের প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশ সফর প্রসঙ্গে তিনি বলেন, চীনের সাথে বাংলাদেশের সম্পর্ক শত শত বছরের। তার পদার্পনে যে ২৭টি সমঝোতা স্বাক্ষর হয়েছে সেগুলো বাংলাদেশের অর্থনীতি এবং ভূ-রাজনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপনের সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য দেন- বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, মহিলা দলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদিকা হেলেন জেরীন খান, বিএনপি নেতা শরিফুল ইসলাম, মনিরুজ্জামান মনির, রাসেল প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই