মেইন ম্যেনু

সাড়া জাগিয়ে ব্যর্থ যে বলিউড অভিনেত্রীরা

বলিউড সিনেমায় বেশির ভাগ সময়ই অনেক নতুন মুখের আবির্ভাব ঘটে। সিনেমায় অভিনয় এবং রূপের ছটায় দর্শকদের মুগ্ধ করেন এ অভিনেত্রীরা। কিন্তু দু একটা সিনেমার পরই তাদের আর দেখা মেলে না সিনে পর্দায়। এমন কিছু বলিউড অভিনেত্রীদের নিয়ে আমাদের আজকের রচনা।

আমিশা প্যাটেল : কাহো না প্যায়ার হ্যায় সিনেমায় আমিশাকে দেখে মুগ্ধ হয়েছিলেন দর্শকরা। রাতারাতি বেড়ে গিয়েছিল তার ভক্তের সংখ্যা। এরপর গাদার সিনেমায় সানি দেওলের সঙ্গে অভিনয় দিয়ে জিতে নিয়েছিলেন পুরস্কার। কিন্তু পরের সময়টা খুব একটা বলার মতো কিছু করেননি তিনি। তার কিয়্যা এহি প্যায়ার হ্যায় এবং এ জিন্দেগি কা সাফার সিনেমা দুটি বক্স অফিসে ব্যর্থ। এরপর পর্দায় আর খুব একটা দেখা মেলেনি তার। তবে সম্প্রতি তার নিজের প্রডাকশন থেকে নির্মিত দেশি ম্যাজিক মুক্তির অপেক্ষায়। আবার তিনি তার ভক্তদের মন জয় করবেন এই প্রত্যাশা তার ভক্তদের।

ভূমিকা চাওলা : বলিউড সুপারস্টার সালমান খানের সঙ্গে তেরে নাম সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে পা রেখেছিলেন ভূমিকা। সিনেমায় অভিনয়ের জন্য পেয়েছিলেন পুরস্কার। কিন্তু তারপর আর কোনো সিনেমায় চমক দেখাতে পারেননি তিনি। এরপর যোগ গুরু ভারত ঠাকুরকে বিয়ের করেন এ অভিনেত্রী। তারপর আর বলিউডে দেখা মেলেনি ভূমিকার। তবে টলিউড সিনেমায় অভিনয় করেছেন। কিন্তু ভূমিকা বলিউড সিনেমায় ফিরবেন এমন প্রত্যাশা তার ভক্তদের।

ডায়ানা পেন্টি : ককটেল সিনেমায় স্নিগ্ধ রূপ আর অসাধারণ অভিনয় দিয়ে দর্শকদের নজর কেড়েছিলেন ডায়ানা পেন্টি। তারপর ধারণা করা হয়েছিল বলিউড সিনেমায় নিয়মিতই দেখা মিলবে এ অভিনেত্রীর। কিন্তু ভক্তদের হতাশ করে পর্দায় আর ফেরেননি তিনি। ভক্তদের আশা খু্ব শিগগির রূপালি পর্দায় দেখা মিলবে ডায়ানার।

লিসা রে : সবুজ চোখ আর আবেদনময়ী শরীরী ভাষা দিয়ে শুরুটা ভালোই করেছিলেন লিসা রে। কসুর সিনেমায় তার সাহসী অভিনয় দেখে বলিউডের উঠতি প্রতিভাবানদের মধ্যে একজন বলে স্বীকৃতি দিয়েছিলেন চলচ্চিত্র বোদ্ধারা। কিন্তু পরবর্তীতে দ্বীপ মেহতার ওয়াটার সিনেমায় প্রশংসা পেলেও কসুর সিনেমার সেই জাদু আর দেখাতে পারেননি। এরপর আর দেখা মেলেনি তার। ভক্তদের আশা এ বিরতি খুব একটা দীর্ঘ হবে না এ অভিনেত্রীর।

মাহিমা চৌধুরী : সুভাষ ঘাইয়ের পরদেশ সিনেমায় গ্রাম্য মেয়ের ভূমিকায় অভিনয়ের মধ্য দিয়ে ভক্তদের হৃদয় কেড়েছিলেন মাহিমা চৌধুরী। তার সরল এবং সাধারণ চরিত্র কোটি মানুষের মন জয় করেছিল। সিনেমাটিতে অভিনয়ের মাধ্যমে অনেক পুরস্কারের জন্যেও মনোনীত হয়েছিলেন। কিন্তু তারপর ইয়ে তেরা ঘর ইয়ে মেরা ঘর, সেহের, সায়া – এর মতো কম বাজেটের সিনেমার অভিনয় করেন তিনি। কিন্তু কোনোটিই আর আগের মতো দর্শক টানতে পারেনি।

সান্দালি সিনহা : তুম বিন সিনেমার পিয়া চরিত্রটি চেনেন না এমন বলিউড দর্শক খুঁজে পাওয়া কঠিন। সেই চরিত্রেই অভিনয় করেছিলেন সান্দালি সিনহা। এটিই তাকে বানিয়ে দিয়েছিল বলিউডের তারকাদের একজন। কিন্তু তারপর মাত্র পিনজার সিনেমায় অভিনয়ের জন্য প্রশংসা পেয়েছিলেন তিনি। এরপর সিনেমা জগত থেকে হারিয়ে যান এ অভিনেত্রী।

গ্রেসি সিং : টিভিতে অভিনয় দিয়ে জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন এ অভিনেত্রী। এরপর লাগান সিনেমায় গৌড়ি চরিত্রে অভিনয় করে প্রশংসা পেয়েছিলেন। সঙ্গে বনে গিয়েছিলেন বলিউড তারকা অভিনেত্রী। কিন্তু তার পরের সিনেমা আরমান বক্স অফিসে ব্যর্থ হয়। ফলাফল খুব একটা দেখা মিলছে না এ অভিনেত্রীর।

 

ভাগ্যশ্রী : শিশু সুলভ কণ্ঠ এবং অপূর্ব হাসি এ দুই নিয়ে বলিউডে পা রেখেছিলেন ভাগ্যশ্রী। সুপারহিট ম্যায়নে পেয়ার কিয়া সিনেমার মধ্য দিয়ে রাতারাতি তারকা খ্যাতি পেয়েছিলেন তিনি। তবে এখানেই শেষ। খুব শিগগিরি সুপারহিট সিনেমা নিয়ে ভক্তদের সামনে হাজির হবেন এ অভিনেত্রী। এমনটাই প্রত্যাশা সকলের।






মন্তব্য চালু নেই