মেইন ম্যেনু

সিটি ও পৌরসভায় কোরবানি হবে ৬২৩৩ স্থানে

পশু কোরবানির জন্য ঢাকাসহ অন্য সব সিটি করপোরেশন এবং সারা দেশের পৌর এলাকাগুলোতে ছয় হাজার ২৩৩টি স্থান নির্ধারণ করে দিয়েছে সরকার। আজ দুপুরে পশু কোরবানির বিষয়ে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় আয়োজিত এক বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

আসন্ন কোরবানির ঈদ উপলক্ষে সারা দেশে ৩৫ থেকে ৪০ লাখ পশু কোরবানি হতে পারে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘মানুষের আর্থিক সক্ষমতা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে পশু কোরবানির হারও বাড়ছে। সরকার যে স্থান নির্ধারণ করে দিয়েছে, পৌর ও সিটি করপোরেশনের বাসিন্দাদের ওই নির্দিষ্ট স্থানে কোরবানি করার আহ্বান জানানো হচ্ছে। এসব বর্জ্য যেন স্বাস্থ্য ও পরিবেশের জন্য হুমকি না হয়।’

এ ছাড়া যাঁরা নিজ বাড়িতে কোরবানি করবেন, তাঁদের নিজ উদ্যোগে বর্জ্য অপসারণের আহ্বান জানান মন্ত্রী।

বৈঠকে ঢাকা সিটি করপোরেশনের মেয়র ও বিভিন্ন পৌরসভার মেয়রসহ সরকারের বিভিন্ন দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় ঢাকার দুই মেয়র কোরবানির পর ৪৮ থেকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে বর্জ্য অপসারণ করা হবে বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।






মন্তব্য চালু নেই