মেইন ম্যেনু

সিডনিতে পারিবারিক পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত

পিঠা বাংলাদেশের সংষ্কৃতি আর ঐতিহ্যের এক অবিচ্ছেদ্য অংশ। বাংলাদেশের যে কোন উৎসবে আনন্দে মিশে আছে রকমারি পিঠা। প্রবাসে পারিবারিক পিঠা উৎসবের আয়োজন বাংলার গ্রামীণ সংস্কৃতির কথা সবাইকে মনে করিয়ে দেয়।

তবে শীতের সাথেই পিঠার সম্পর্ক নিবিড়। প্রবাসে বেড়ে উঠা নুতন প্রজন্মের কাছে এই পিঠা অনেকটাই অধরা। কিন্তু আশার কথা হচ্ছে, পিঠার এই ঐতিহ্য প্রবাসেও টিকে আছে। প্রবাসের বিভিন্ন ব্যক্তি কিংবা পারিবারিক উদ্যোগে পিঠা উৎসব বা পিঠা মেলার আয়োজন করা হয়। আর এরই মধ্য দিয়ে দেশের মত প্রবাসেও প্রসার ঘটছে আমাদের পিঠা সংস্কৃতির।

পিঠাগত ২০শে সেপ্টেম্বর (রোববার) সন্ধ্যায় সিডনীর ম্যাক্কয়ারীফিল্ডস্থ মোহাম্মাদ আবদুল কাউয়ুমের বাসভবনে পারিবারিক পিঠা উৎসবের আয়োজন করা হয়। ঐদিন সকাল থেকেই পিঠা শিল্পীরা রকমারি পিঠা তৈরিতে ব্যস্ত ছিলেন। বাসা থেকে বানিয়ে আনা রকমারি পিঠায় সাজিয়ে তোলা হয়েছিল পিঠা উৎসবের টেবিল। সেখানে থরে থরে শোভা পাচ্ছিল ঝুরি, পাকন, মুগ-পুলি, পাটিসাপটা, নারিকেল, তেলের, মাফিন আরো নানা ধরনের আকর্ষণীয়, সুস্বাদু ও লোভনীয় পিঠা।

পিঠা উৎসবের সাবলিল উপস্থাপনায় ছিলেন নবধারা নিউজ ডট নেটের সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ খোকন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিদেশবাংলা২৪ ডট কমের সম্পাদক মোহাম্মেদ আবদুল মতিন, আরটিভি’র অস্ট্রেলিয়া প্রতিনিধি সুলতান আরিফিন প্রমুখ। উৎসবে অংশগ্রহনকারী অতিথিদেরকে দেশীয় সু-স্বাদু রান্না দিয়ে নৈশভোজে আপ্যায়ন করেন মোহাম্মাদ আবদুল কাউয়ুম ও মুনিয়া কাউয়ুম।

পিঠা উৎসব

পিঠা উৎসব

পিঠা উৎসব






মন্তব্য চালু নেই