মেইন ম্যেনু

সিরিয়ায় আইএসের ওপর ফ্রান্সের বিমান হামলা

সিরিয়ায় আইএসের প্রধান ঘাঁটি ও তাদের ঘোষিত রাজধানী রাকায় বিমান হামলা চালিয়েছে ফ্রান্স। প্যারিসে গত শুক্রবার সন্ত্রাসী হামলায় ১২৯ জন নিহত হওয়ার পর এ বিমান হামলা চালাল ফ্রান্স।

ফ্রান্সে শুক্রবার হামলার পরই দেশটির প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওঁলাদ এ হামলার জন্য আইএসকে দায়ী করে তাদের বিরুদ্ধে ‘যুদ্ধের’ ঘোষণা দিয়েছিলেন। শনিবার প্যারিসে হামলার দায় শিকার করে নেয় আইএস। এরপর রোববার রাতে ফরাসি জঙ্গি বিমান রাকায় বড় পরিসরে হামলা চালায়।

ফ্রান্সের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, রোববার রাতে ১০টি ফাইটার বোম্বারসহ মোট ১২টি যুদ্ধবিমান রাকায় হামলা চালায়। এ সময় ২০টি বোমা আইএসের বিভিন্ন ঘাঁটি লক্ষ্য করে ফেলা হয়।

এক বিবৃতিতে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলে, ‘প্রথমে যে লক্ষ্যটি ধ্বংস করা হয়েছে সেটি আইএস কমান্ড পোস্ট, জিহাদি সংগ্রহশালা ও অস্ত্র-গোলাবারুদের গুদাম হিসেবে ব্যবহৃত হতো। দ্বিতীয় হামলা চালানো হয় সন্ত্রাসীদের প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে।’

তারা আরো জানায়, জর্ডান ও সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে এ হামলা পরিচালনা করা হয় এবং যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে যৌথভাবে এ হামলা চালানো হয়েছে।

এদিকে, আইএস বিরোধী সংগঠন ‘রাকা ইজ বিয়িং সাইলেন্টলি স্লটার্ড’ এক টুইটার বার্তায় জানায়, ফ্রান্সের বিমান হামলায় একটি স্টেডিয়াম, একটি জাদুঘর, কয়েকটি ক্লিনিক, একটি হাসপাতাল, একটি মুরগির খামার ও একটি সরকারি ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। পুরো শহরে পানি ও বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। কমপক্ষে ৩০টি বিমান হামলা চালানো হয়েছে বলে দাবি করে সংগঠনটি।

ফ্রান্সে সন্ত্রাসী হামলার পর আইএসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ নতুন করে শুরু করার শপথ নিয়েছেন বিশ্ব নেতারা।






মন্তব্য চালু নেই