মেইন ম্যেনু

সিলেটে আ.লীগ ২ বিএনপি ২

দু-একটি কেন্দ্রে বিচ্ছিন ঘটনা ছাড়া সিলেট সদর উপজেলার আটটি ইউনিয়নে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। আট ইউনিয়নের মধ্যে দুটিতে বিএনপির, দুটিতে আওয়ামী লীগের, তিনটিতে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ও একটিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

যে ইউনিয়নে যারা নির্বাচিত হয়েছেন
মোগলগাঁওয় ইউনিয়ন: সিলেট সদর উপজেলার ৭নং মোগলগাঁও ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের মো. হিরণ মিয়া। তিনি পেয়েছেন ৫ হাজার ৯২৯ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান সামসুল ইসলাম টুনু (আনারস প্রতীক) পেয়েছেন ৫ হাজার ৪০২ ভোট। ওই ইউনিয়নে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মাসুক মিয়া তৃতীয় হয়েছেন।

কান্দিগাঁওয় ইউনিয়ন: কান্দিগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের নিজাম উদ্দিন। জামায়াত সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী আবদুল মনাফকে পরাজিত করে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। কান্দিগাঁও ইউনিয়নের সবকটি কেন্দ্রের ফলাফল পাওয়া গেছে। প্রাপ্ত ফলাফলে নৌকা প্রতীকের নিজাম উদ্দিন পেয়েছেন ৭ হাজার ৭৯৫ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন আবদুল মনাফ। আনারস প্রতীকে তার প্রাপ্ত ভোট ৪ হাজার ৫৭৫।

হাটখোলা ইউনিয়ন: হাটখোলা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপির আজির উদ্দিন। তিনি পেয়েছেন ৪ হাজার ২৫৫ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের খুর্শিদ আলম পেয়েছেন ২ হাজার ৬২২ ভোট।

খাদিমপাড়া ইউনিয়ন: খাদিমপাড়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রাথী অ্যাডভোকেট আফসর আহমদ (আনারস প্রতীক) পেয়েছেন ১২ হাজার ৮৫২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির মো. ফারুক আহমদ পেয়েছেন ৮ হাজার ২০৬ ভোট। আর আওয়ামী লীগের নজরুল ইসলাম বেলাল পেয়েছেন ৬ হাজার ৭২২ ভোট।

টুকেরবাজার ইউনিয়ন: টুকেরবাজার ইউনিয়নে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন বিএনপির শহীদ আহমদ। ১৪ কেন্দ্রের মধ্যে ১৩টি কেন্দ্রের প্রাপ্ত ফলাফলে তিনি নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীর চেয়ে বিশাল ব্যবধানে এগিয়ে থেকে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। শহীদ আহমদ ১৩ কেন্দ্রে পেয়েছেন ১৩ হাজার ৯৫ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আলতাফ হোসেন ১৩ কেন্দ্রের ফলাফলে পেয়েছেন ৭ হাজার ৩২টি ভোট। এ ইউনিয়নে একটি কেন্দ্রের ভোট স্থগিত রয়েছে। ওই কেন্দ্রের মোট ভোট সংখ্যা ৪ হাজার ৭৩৩।

টুলটিকর ইউনিয়ন: টুলটিকর ইউনিয়নে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এসএম আলী হোসেন (আনারস প্রতীক)। তিনি পেয়েছেন ২ হাজার ৫২৫ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের আবদুল মছব্বির পেয়েছেন ১ হাজার ৭৭৩ ভোট পান। ধানের শীষের মুহিবুর রহমান পেয়েছেন ১ হাজার ৪৫৮ ভোট।

জালালাবাদ টুলটিকর ইউনিয়ন: জালালাবাদে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মনফর আলী (চশমা প্রতীক) ২ হাজার ৯০০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির ইসলাম উদ্দিন পেয়েছেন ২ হাজার ৩০০ ভোট।

খাদিমনগর ইউনিয়ন: খাদিমনগর ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা দেলোয়ার হোসেন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।






মন্তব্য চালু নেই