মেইন ম্যেনু

সিলেটে চৈত্র মাসে বৈশাখী তাণ্ডব!

প্রকৃতি যেন বিরূপ হয়ে উঠেছে সিলেটে। পাহাড়ি ঢল, চৈত্র মাসে কালবৈশাখীর হানা, এরই মধ্যে মৃদু ভূকম্পন- সব মিলিয়ে এ বিভাগ যেন প্রাকৃতিক দুর্যোগের এলাকায় পরিণত হয়েছে।

মঙ্গলবার (০৫ এপ্রিল) দুপুরে সিলেট আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ সাঈদ আহমদ জানান, এদিন সকাল সাড়ে ১১টা থেকে প্রায় আধঘণ্টা নগরীতে প্রচণ্ড ঝড়বৃষ্টি হয়। এর পরপরই অনুভূত হয় মৃদু ভূকম্পন।

এদিকে, বজ্রপাতে সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে আব্দুর রহমান (৩০) নামে এক কৃষকের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে পুলিশ প্রশাসন।

কালবৈশাখীর তাণ্ডবে বেশ কিছু বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কয়েক জায়গায় বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে বিদ্যুৎ সংযোগ।

ভারী বর্ষণে নগরীর হাওয়াপাড়া, ইলেকট্রিক সাপ্লাই এলাকা, ঘাসিটুলা উপশহরের বেশকিছু এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। পাহাড়ি ঢলে প্লাবিত হয়েছে সিলেটের নিম্নাঞ্চল।

ঝড় ও প্লাবনে নিম্নাঞ্চলের বোরো ধান পানিতে তলিয়ে গেছে বলেও জানা গেছে। বিশেষ করে, সিলেটের হাকালুকি হাওড়, সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জসহ মৌলভীবাজারের হাওড় অঞ্চলে ধানের জমি তলিয়ে গেছে।

স্থানীয় আবহাওয়া অফিস সূত্র জানিয়েছে, মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে কালবৈশাখী ঝড় বয়ে যাচ্ছে সিলেটের ওপর দিয়ে। আগামী কয়েকদিন এ অবস্থা অব্যাহত থাকবে।

সিলেট জেলা প্রশাসক জয়নাল আবেদীন জানান, ঝড় ও ভূমিকম্পের পর বিভিন্ন উপজেলায় খোঁজখবর নেওয়া হয়েছে। কোথাও তেমন কোনো ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি।






মন্তব্য চালু নেই