মেইন ম্যেনু

সিলেট লেখক ফোরাম’র ১২ বছর পুর্তিতে মৌলভীবাজারে সাহিত্য আড্ডা

সিলেট লেখক ফোরাম’র ১২ বছর পুর্তি উপলক্ষে ১২ দিন ব্যাপী সাহিত্য উৎসবের অংশ হিসেবে সিলেট বিভাগের মৌলভী বাজারে অনুষ্ঠিত হয় দিন ব্যাপী সাহিত্য আড্ডা, বিভিন্ন বিষয়ে প্রতিযোগিতা, পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সংগঠনের সভাপতি সাংবাদিক গীতিকার ও কবি নাজমুল ইসলাম মকবুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, দেশে বিদেশে সাহিত্য আড্ডার পাশাপাশি আমাদের গুণীজনদের সম্মান দিতে গুণীদের স্মৃতিময় স্থানসমুহে সাহিত্য আড্ডা আয়োজনের মাধ্যমে তাদের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতির দাবী জানিয়ে সিলেট লেখক ফোরাম যে ধারাবাহিক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে তা সত্যিই প্রশংসনীয়। সিলেট বিভাগের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সাহিত্য সাধনায় উদ্বুদ্ধ করণ ও প্রতিযোগিতা আয়োজনের মতো প্রশংসনীয় কার্যক্রমও সবার নজর কেড়েছে। লেখক ফোরাম ১২ বছর পুর্তিতে ১২ দিন ব্যাপী সাহিত্য উৎসবের বিশাল কর্মসূচি ঘোষনা করেও নজীর সৃষ্টি করলেন। এসব কার্যক্রম ইতিহাসের পাতায় স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে।

মৌলভী বাজারের জগৎসী গোপালকৃষ্ণ এম সাইফুর রহমান বিদ্যালয় ও মহাবিদ্যালয় অডিটরিয়ামে গতকাল অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা কবি ও কথাসাহিত্যিক এডভোকেট মুজিবুর রহমান মুজিব। প্রধান আলোচকের বক্তব্য রাখেন প্রবীণ সাংবাদিক ও কলামিস্ট আফতাব চৌধুরী।

সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আনোয়ার হোসেনের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কামাল বাজার আলিম মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা মুফতি একেএম মনোওর আলী, লন্ডনের জনপ্রিয় চ্যানেল এস এর পরিচালক নাট্যকার ও অভিনেতা খালেদ চৌধুরী, জগৎসী গোপালকৃষ্ণ এম সাইফুর রহমান বিদ্যালয় ও মহাবিদ্যালয়ের প্রিন্সিপাল নুরুল ইসলাম, বাহারমর্দান জয়গুন্নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কবি আবু সাইদ রুপিয়ান, বাংলাদেশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি মৌলভীবাজার জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক মুর্শেদ আহমদ মুন্না।

অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন প্রবীণ সালিশ ব্যক্তিত্ব সমাজসেবী ও শিক্ষানুরাগী সাবেক ইউ,পি চেয়ারম্যান মিলাদ হোসেন।

শুরুতে পবিত্র কালামে পাক থেকে তিলাওয়াত করে দশম শ্রেণীর ছাত্রী ফাহিমা জান্নাত। সঙ্গীত পরিবেশন করেন জাগরণ ইসলামী সাংস্কৃতিক দলের সঙ্গীত পরিচালক এইচ এম আমানুল্লাহ এবং বিদ্যালয় ও মহাবিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীরা। সকাল থেকে বিদ্যালয় অডিটরিয়ামে শুরু হয় তাৎক্ষনিক কবিতা ও ছড়া লেখা প্রতিযোগিতা, সুন্দর হাতের লেখা প্রতিযোগিতা, অভিনয় ও সঙ্গীত প্রতিযোগিতা। বিশেষ আকর্ষন ছিলো কাকন ফকিরের পুঁথি। অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার প্রদান করেন ফোরাম নেতৃবৃন্দ ও অতিথিবৃন্দ। শুরুতে প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিবৃন্দকে ফুল দিয়ে বরণ করা হয় ব্যাপক করতালির মাধ্যমে। অনুষ্ঠান শেষে সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের কবর জিয়ারত ও দোয়া করেন ফোরাম নেতৃবৃন্দ ও অতিথিবৃন্দ।






মন্তব্য চালু নেই