মেইন ম্যেনু

সীমান্তে এভাবে হত্যা করে লাভ কী হচ্ছে ভারতের?

গোলাম মোর্তুজা : বাংলাদেশে যে ভারত বিরোধী সেন্টিমেন্ট বা রাজনীতি,তার জন্যে কি বাংলাদেশের মানুষই দায়ী, না ভারতেরও দায় আছে? বুঝলাম, গরু আনতেই বাংলাদেশের মানুষ সীমান্তে যায়। তাই বলে গুলি করে হত্যা করবেন?

এই গরু ব্যবসার সঙ্গে তো ভারতের লোকজন এবং বিএসএফ জড়িত। জড়িত আমাদের বিজিবিও। বিজিবি বিষয়ে কিছু বলতে চাই না,হাসি মুখে লাশ ফেরত আনা ছাড়া,তারা সীমান্তে আর কি করে জানিনা!

সীমান্তে দু’চারটি হত্যাকান্ড নিয়ে সময় ব্যয় করার মত সময় আমাদের রাষ্ট্রের নেই, মন্ত্রীরা তা পরিস্কার করেই বলেছেন। এখন দাবি-অনুরোধ সব-ই ভারতের কাছে।

পাকিস্তান বা চীন সীমান্ত আর বাংলাদেশ সীমান্তের প্রেক্ষপট এক নয়। সেটা বিবেচনায় নিয়েই বলছি,পাকিস্তান আপনাদের সীমান্ত অতিক্রম করে এসে সৈনিক হত্যা করে। সন্ত্রাসী পাঠিয়ে মুম্বাই হোটেলে আক্রমণ করায়। আর বাংলাদেশ কি করে? আপনাদের মানবিক আবেদনে সারা দিয়ে কখনও ফি ছাড়া, কখনও সামান্য ফিতে বাংলাদেশের ভেতর দিয়ে পণ্য পরিবহনের সুবিধা দেয়।

এক সময় আশ্রয় দিলেও,এখন সেভেন সিস্টারসের বিদ্রোহীদের ধরে গোপণে আপনাদের হাতে দেয়,আইন না থাকা সত্বেও। আর আপনারা গুলি করে বাংলাদেশের মানুষ হত্যা করছেন নিয়মিত। আজকেও হত্যা করেছেন দুই জনকে।

পাকিস্তান সীমান্তে গুলি করেন না,কারণ পাকিস্তান পাল্টা গুলি করবে। পাকিস্তান গুলি করলেও,পাল্টা গুলি করতে চিন্তা করেন।

চীন সীমান্তে গুলি করার কথা চিন্তাই করতে পারেন না। পাকিস্তান সীমান্তে হত্যাকান্ডের শিকার হয়ে,বাংলাদেশ সীমান্তে হত্যাকান্ড ঘটাচ্ছেন।

আপনারা বাংলাদেশের সরকারের বন্ধু হয়ে,বাংলাদেশের জনগণকে শত্রু মনে করছেন। ভারত যদি বাংলাদেশের জনগণের বন্ধু হওয়ার নীতি নেয়, ক্ষতিটা কী? এভাবে হত্যা করে লাভ কী হচ্ছে ভারতের?






মন্তব্য চালু নেই