মেইন ম্যেনু

সুন্দরীর এই স্কার্টই পৃথিবীর সবচেয়ে দামি পোশাক! দাম জানলে মাথা ঘুরে যাবে…

সাবওয়ের সামনে দিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন মেরলিন, পরনে স্কার্ট। আচমকা সাবওয়ের সামনের একটি ঝাঁঝরি থেকে উঠে এল দমকা হাওয়া, সেই হাওয়ায় উড়ে অনেকখানি উঠে গেল মেরলিনের স্কার্টটি। উন্মুক্ত হয়ে পড়ল নায়িকার মসৃণ দুটি পা, চকিতে দেখা গেল স্কার্টের তলায় পরিহিত অন্তর্বাসও।

নায়িকা যত নামজাদা, তাঁর পোশাকও ততটাই মহার্ঘ্য। হলিউডের স্বপ্নসুন্দরী মেরলিন মনরোর ‘দি সেভেন ইয়ার ইচ’ সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছিল ১৯৫৫ সালে। তারই একটি বিখ্যাত দৃশ্যে দেখা গিয়েছিল, সাবওয়ের সামনে দিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন মেরলিন, পরনে স্কার্ট। আচমকা সাবওয়ের সামনের একটি ঝাঁঝরি থেকে উঠে এল দমকা হাওয়া, সেই হাওয়ায় উড়ে অনেকখানি উঠে গেল মেরলিনের স্কার্টটি। উন্মুক্ত হয়ে পড়ল নায়িকার মসৃণ দুটি পা, চকিতে দেখা গেল স্কার্টের তলায় পরিহিত অন্তর্বাসও। লাজুক অথচ আবেদনময়ী হাসি হেসে কোনওক্রমে দু’হাত দিয়ে স্কার্টটি সামলে নিলেন মেরলিন।

image (6)

‘সেভেন ইয়ার ইচ’-এর সেই বিখ্যাত দৃশ্য

সেই দৃশ্য ঝড় তুলেছিল মেরলিন ভক্তদের মনে। কালক্রমে মেরলিনের সেই স্কার্ট উড়ে যাওয়ার সিনটিই হলিউডের সবচেয়ে আলোচিত দৃশ্যগুলির একটি হয়ে উঠেছে। শুধু‌ তাই নয়, ইতিহাসের পাতায় ঠাঁই করে নিয়েছে মেরলিনের সেই স্কার্টটিও।

কেননা, এখনও পর্যন্ত কোনও নিলামে বিক্রি হওয়া পৃথিবীর সবচেয়ে দামি পোশাক এটিই। ২০১১ সালের ১৮ জুন একটি নিলামে এই স্কার্ট বিক্রি হয় ৪.৬ মিলিয়ন ডলারে। অর্থাৎ টাকার হিসেবে এর দাম ৩১ কোটি টাকারও বেশি। পোশাক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, উইলিয়াম ট্রাভেলিয়ার ডিজাইন করা এই আইভরি রেয়ন অ্যাসিটেট স্কার্টটির নির্মাণে তেমন কোনও বিশেষত্ব নেই। তাহলে এই বিপুল দাম কেন এর? কেন আবার, মেরলিন মনরোর স্পর্শেই এই স্কার্ট মহামূল্যবান হয়ে উঠেছে।






মন্তব্য চালু নেই