মেইন ম্যেনু

সুস্বাদু নবরত্ন তরকারি

রোস্ট, রেজালা বা ভুনা মাংসের সঙ্গে পোলাও বা সাদা ভাত অতিথি আপ্যায়নে অতি পরিচিত খাবার। তবে খাবারের রুচি বাড়াতে বা ভিন্নতার স্বাদ নিতে আয়োজন থাকে নবরত্ন তরকারি। কারো বাসায় দাওয়াতে গিয়ে স্বাদ পেয়েছেন হরেক রকম সবজি দিয়ে রান্না সুস্বাদু নবরত্নের। বাসায় এসে অনেক চেষ্টার করেও তেমনটি আর সম্ভব হয়নি। অথচ প্রস্তুত প্রণালী জানলে আপনার হাতেও হতে পারে সুস্বাদু নবরত্ন তরকারি। আসুন দেখে নেয়া যাক।

যা যা লাগবে

বরবটি ২৫০ গ্রাম, আলু ও গাজর ২৫০ গ্রাম, ফুলকপি ২টি, ক্যাপসিকাম বড় ১টি, টমেটো ২টি, পেঁয়াজবাটা ১ কাপ, কাজু বাদামবাটা ২ টেবিল চামচ, এলাচ ৫টি, দারুচিনি ৩টি, তেজপাতা ২টি, ধনেপাতা পরিমাণ মতো, পেঁয়াজ বেরেস্তা আধা কাপ, পেঁয়াজ ৪ টুকরা করে নিতে হবে আধা কাপ, মাখন ৫০ গ্রাম, রসুন কুচি ১ চা-চামচ, সাদা তেল ৩ টেবিল চামচ, হলুদ-মরিচের গুঁড়া আধা চা-চামচ, আস্ত কাঁচা মরিচ ৩-৪টি, লবণ ও চিনি স্বাদ অনুসারে, আদা ও রসুন বাটা ২ টেবিল চামচ এবং ফ্রেশ ক্রিম ১ কৌটা।

যেভাবে করবেন

সবজিগুলো কিউব করে কেটে আধা সেদ্ধ করতে হবে। এবার ঠান্ডা পানিতে রাখতে হবে কিছুক্ষণ। অপর একটি পাত্রে তেলের মধ্যে এলাচ ও দারুচিনি ভাজতে হবে। সুগন্ধ বের হলে পেঁয়াজবাটা কষাতে হবে। তারপর একে একে আদা, রসুন, হলুদ এবং মরিচের গুঁড়া দিয়ে আরও কিছুক্ষণ কষাতে হবে। কাজু বাদামবাটা দিয়ে বেশ কিছুক্ষণ মৃদু আঁচে নাড়তে থাকুন। অনবরত নাড়তে হবে যেন তাপে লেগে না যায়। তেল ছাড়লে নামিয়ে আনুন। এরপর কড়াইতে মাখন দিয়ে রসুন কুচি ফোড়ন দিতে হবে। রসুন বাদামি রঙ হলে সেদ্ধ করে রাখা সবজিগুলো দিয়ে ভালো করে নাড়তে হবে। তারপর প্রস্তুতকৃত মসলা সেদ্ধ সবজিতে দিন। একে একে টুকরা করে কাটা টমেটো, ক্যাপসিকাম ও পেঁয়াজ দিতে হবে এবং নাড়াচাড়া করতে হবে। সবজি দেখে লবণ দিয়ে তারপর কাঁচা মরিচ ও চিনি দিতে হবে। ফ্রেশ ক্রিম দিয়ে ধনেপাতা কুচি আর পেঁয়াজ বেরেস্তা দিয়ে নামিয়ে আনুন অসাধারণ স্বাদের নবরত্ন তরকারি।






মন্তব্য চালু নেই