মেইন ম্যেনু

সেই বীথির অপারেশন সফল, ঈদের পর দ্বিতীয় দফা

মুখমণ্ডলসহ শরীরে লোম নিয়ে জন্ম নেয়া বীথি আক্তারের (১২) আংশিক অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। প্রথম দফায় তার বাম স্তনে অস্ত্রোপচার হল, ঈদের পর অপর স্তনে দ্বিতীয় দফায় অস্ত্রোপচার করা হবে।

সোমবার (২০ জুন) সকাল সাড়ে ৮টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে অস্ত্রোপচার শুরু হয়। বিকেল ৩টা পর্যন্ত শুধু একটি স্তনের অস্ত্রোপচার করতে সক্ষম হন চিকিৎসকরা।

চিকিৎসকরা জানান, একটি স্তনে অস্ত্রোপচার করতে বীথির শরীর থেকে প্রচুর রক্ত বেরিয়ে গেছে। তার শরীরে চার ব্যাগ রক্ত দেয়া হয়েছে। নতুন রক্ত তার শরীরে অ্যাডজাস্ট হতে সময় লাগবে। এজন্য চিকিৎসকদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী অপর স্তনে অস্ত্রোপচার আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে।

প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগের অধ্যাপক ডা. ইকবাল মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘বীথির বাম স্তনের অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। অস্ত্রোপচারে দীর্ঘ সময় লাগায় আজকের মতো এক স্তনেই অস্ত্রোপচার হয়েছে। পরবর্তী সময়ে দিন নির্ধারণ করে ডান স্তনে অস্ত্রোপচার করা হবে। এজন্য আমরা তিন থেকে চার সপ্তাহ সময় নেবো। আর্থাৎ ঈদের আগে আর অস্ত্রোপচার হচ্ছে না।’

তিনি বলেন, ‘স্তনের বাড়তি অংশ কেটে ফেলে রোগীর বয়স এবং ওজন সঙ্গে সামঞ্জস্য রাখা হয়েছে। আশা করছি কোনো সমস্যা হবে না।’ বাংলাদেশে স্তনের অস্ত্রোপচারের ক্ষেত্রে এটিই সবচেয়ে বড় অস্ত্রোপচার বলেও জানিয়েছেন তিনি।

গত ১৬ এপ্রিল বিএসএমএমইউ এর অ্যান্ডোক্রাইনোলজি (ডায়াবেটিস ও হরমোন) বিভাগে ভর্তি করা হয় বীথিকে। গত ২৩ মে বীথির মুখের লোম অপসারণের জন্য প্রথমবারের মতো লেজার থেরাপি দেয়া হয়েছে।

টাঙ্গাইল জেলার নাগরপুর উপজেলার জয়ভোগ গ্রামের দিনমজুর আবদুর রাজ্জাকের তিন সন্তানের মধ্যে বড় বীথি। জয়ভোগ পাবলিক উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী সে।






মন্তব্য চালু নেই