মেইন ম্যেনু

সেলফির জন্য ১১৫০ ফুট উঁচু সেতুতে!

সেলফির জন্য মানুষ কিনা করে! প্রাণের মায়া তুচ্ছ করে পাহাড় চূড়ায় আহরণ কিংবা উত্তাল সাগরে ঝাঁপ দিতেও দ্বিধা করেন না অনেকে। যত দিন যাচ্ছে বিশ্বে ততই যেন সেলফিপ্রেমীদের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। সম্প্রতি এমনই দুই বেপরোয়া সেলফি প্রেমিকের খোঁজ পাওয়া গেছে তুরস্কে।

পাভেল স্মিরনভ এবং ওজকান ইপার নামের ওই দুই যুবক ইস্তাম্বুলের বোসফোরাস প্রণালীর ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া সেতুর চূড়ায় চড়ে বসেছিলেন। তারা সেতুটির ১১৫০ ফুট উঁচুতে ওঠেন। সেতুতে ওঠার পর গোটা শহর ছিল তাদের পায়ের নিচে। তাদের চারপাশ দিয়ে ভেসে যাচ্ছিল মেঘের দল।

কিন্তু বেচারীদের ভাগ্যটাই খারাপ! জীবনের মায়া ত্যাগ করে অতটা উঁচুতে ওঠে সেলফি তোলার পরই পুলিশের হাতে ধরা। তবে এ নিয়ে কোনো আফসোস নেই তাদের। সেলফি তোলা শেষে নিরাপদে নেমে আসতে পারাতেই তারা দারুণ খুশি। এ নিয়ে স্মিরনভের বলেছেন,‘আমি অনেক উঁচুতে উঠেছিলাম। সেখানে চড়ার পর নিজেকে পুরোপুরি স্বাধীন মনে হয়েছে। এ নিয়ে আমি ভীষণ গর্বিত।’

তার সঙ্গী ইম্পেয়ার বলেন,‘নিজেকে তখন অন্যদের চাইতে আলাদা মনে হয়েছিল। যেন সব সীমাবদ্ধতার ওপরে চলে গিয়েছিলাম।’ তবে বিপজ্জনকভাবে ব্রিজের বিপজ্জনক সীমা অতিক্রম করায় তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। এছাড়া তাদের বিরুদ্ধে কোনোরকম আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে না বলেও জানা গেছে।






মন্তব্য চালু নেই