মেইন ম্যেনু

‘সেলফি’ তুলুন, কিন্তু বাইসনের সাথে নয়!

যুক্তরাষ্ট্রের ইয়েলোস্টোন ন্যাশনাল পার্কে আসা পর্যটকদের সতর্ক করে দেয়া হয়েছে যেন তারা সেখানকার বাইসনের সাথে সেলফি তোলার চেষ্টা না করেন। বিবিসি বাংলা তাদের এক প্রতিবেদনে এমনই তথ্য দিয়েছে।

বাইসন হচ্ছে এক ধরণের মহিষ – যাদের প্রায়-বিলুপ্তির হাত থেকে রক্ষা করে ওয়াইওমিং রাজ্যের এই ইয়েলোস্টোন অভয়ারণ্যে অবাধে বিচরণের জন্য ছেড়ে দেয়া হয়েছে। কিন্তু তাদের সাথে সেলফি তোলাটা মোটেও নিরাপদ নয়।

গত এক বছরের মধ্যে বাইসনের সাথে সেলফি তুলতে গিয়ে আহত হবার পাঁচটি ঘটনার পর কর্তৃপক্ষ এই সতর্কবাণী জারি করলো।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, এরকম ঘটনা সবশেষ শিকার হন ৪৩ বছর বয়স্ক একজন নারী। তিনি ও তার মেয়ে সেলফি তোলার জন্য অন্যদের হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে একটি বাইসনের খুব কাছাকাছি চলে যান। এর পর হঠাৎ করেই বাইসনটি তাকে তাড়া করে এবং তার গুঁতোয় নারী শূন্যে কয়েক ফুট ওপরে উঠে যান। তবে তার গুরুতর কোন চোট লাগে নি।

একটি পূর্ণ বয়স্ক বাইসনের ওজন ৯০০ কেজিরও বেশি হতে পারে, কিন্তু এত বিশাল আকৃতির হয়েও তারা অত্যন্ত দ্রুত দৌড়োতে পারে।

পার্কের নিয়মে বলা হয়েছে যেন দর্শকরা বাইসন থেকে অন্তত ৭৫ ফুট দূরে থাকেন। জুন মাসে একইভাবে বাইসনের গুঁতোয় ৬৮ বছর বয়স্ক এক নারী গুরুতর আহত হন।






মন্তব্য চালু নেই