মেইন ম্যেনু

সৈয়দপুরে রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ল যাত্রীবাহী বিমান

নীলফমারীর সৈয়দপুর বিমানবন্দরে অবতরণ করার সময় রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়েছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের একটি বিমান। শুক্রবার সকাল পৌনে ৮টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

তবে এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি বলে জানিয়েছেন সৈয়দপুর বিমানবন্দরের স্টেশন ম্যানেজার শাহীন আহম্মেদ। তিনি বলেন, ‘যাত্রী এবং ক্রুদের সবাই নিরাপদে আছেন।’

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের সৈয়দপুর বিমানবন্দরের ইনচার্জ রাকিব মোস্তাকিম বলেন, ‘দুর্ঘটনার পর ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারে করে তাৎক্ষণিকভাবে দুইজন প্রকৌশলীকে আনা হয়েছে। সেনাবাহিনী ও বিমানবন্দর ফায়ার সার্ভিসের সহায়তার বর্তমানে বিমানটি উদ্ধার ও মেরামতের কাজ চলছে।’

দুযোগপূর্ণ (টানা বৃষ্টি) আবহাওযার কারণেই এ ঘটনা ঘটেছে বলে মনে করেন তিনি।

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিএস-১৫১ বিমানটি শুক্রবার সকাল পৌনে ৭টার দিকে ৭৪ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে সৈয়দপুরের উদ্দেশে ছেড়ে যায়। সকাল পৌনে ৮টার দিকে সৈয়দপুর বিমানবন্দরে অবতরণ করে। এর পর রানওয়েতে টার্নিং নেওয়ার সময় বিমানটির সামনের চাকা পিচলে রানওয়ে থেকে ছিটকে মাঠের মধ্যে যায়। এতে বিমানটির চাকা নষ্ট হয় এবং আপাতত বিমানবন্দরে বিমান উঠা-নামা বন্ধ রয়েছে।

ইউএস-বাংলার ওই ফ্লাইটটিতে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (বিপিডিবি) কয়েকজন কর্মকর্তাও ছিলেন।

বিপিডিবির পরিচালক (জনসংযোগ) সাইফুল হাসান বলেন, ‘বিমানে থাকা পিডিবির কয়েকজন আমাকে জানিয়েছেন যে, বিমানটি ল্যান্ড করার পর টার্নিংয়ের সময় হার্ডব্রেক করে। একপর্যায়ে বিমানের চাকা রানওয়ে থেকে ছিটকে মাঠের মধ্যে চলে যায়। এ সময় যাত্রীরা সবাই ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়েন। তবে কোনোপ্রকার হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।’






মন্তব্য চালু নেই