মেইন ম্যেনু

সোনালী ব্যাংকে ডাকাতির চেষ্টা, র‌্যাবের গুলিতে নিহত ১

রাজধানী ঢাকার অদূরে ধামরাইয়ে সোনালী ব্যাংকের শাখায় ডাকাতির চেষ্টাকালে র‌্যাবের সঙ্গে বন্ধুকযুদ্ধে এক ডাকাত সদস্য নিহত হয়েছেন। এ সময় দেশীয় অস্ত্রসহ ৫ জনকে আটক করেছে র‌্যাব। প্রাথমিকভাবে নিহত ডাকাত সদস্যসের নাম মাসুদ বলে জানা গেছে।

ধামরাই বাজারের রিয়াজ উদ্দিন মার্কেটের দ্বিতীয় তলায় অবস্থিত সোনালী ব্যাংকের ধামরাই শাখায় শুক্রবার ভোরে এ ডাকাতির চেষ্টা করা হয়।

আটকরা হলেন- সবুজ (৬২), শিলা (১৮), রুমানা (২৫), রিয়াজ উদ্দিন (৪৮) ও বাদশা মিয়া (৩৮)। তাদের সঙ্গে সাকিব নামের ১০ বছর বয়সী এক শিশুও রয়েছে। এরা সবাই ৩ মাস আগে ব্যাংকটির উপরের ফ্লোরে নিজেদের পোশাক কারখানার চাকরিজীবী পরিচয় দিয়ে বাসা ভাড়া নেয়।

র‌্যাব-৪ সূত্রে জানা গেছে, ধামরাই বাজারে চারতলা বিশিষ্ট একটি ভবনের দ্বিতীয় তলায় অবস্থিত সোনালী ব্যাংকের শাখায় ওই ভবনের ছাদ কেটে ব্যাংকের ভেতরে প্রবেশ করে একদল ডাকাত। পরে তারা ব্যাংকের ভল্ট ভেঙ্গে টাকা লুট করার চেষ্টা চালায়।

এ সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৪ এর সদস্যরা ওই ভবনটির চারপাশে অবস্থান নেয়। ডাকাতরা র‌্যাব সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে ব্যাংকের ভেতর থেকে বের হওয়ার চেষ্টা করে এবং র‌্যাব সদস্যকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এ সময় র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছুড়লে মাসুদ নামের এক ডাকাত সদস্য নিহত হন। এবং দুই নারীসহ আটক করা হয় পাঁচ জনকে।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত র‌্যাবের এডিশনাল ডিআইজি খন্দকার লুৎফুল কবির জানান, তিন মাসে আগে ডাকাত সদস্যরা সোনালী ব্যাংকের ওই শাখার উপরের তৃতীয় তলার ফ্লোরটিতে নিজেরদের পোশাক কারখানার চাকরিজীবী পরিচয় দিয়ে বাসা ভাড়া নেয়। এরপর তারা পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী ছাদ কেটে ব্যাংকের ভিতরে প্রবেশ করে ডাকাতির চেষ্টা চালায়।






মন্তব্য চালু নেই