মেইন ম্যেনু

সোমালিয়ায় রেস্তোরায় জঙ্গি হামলায় নিহত ২৩

সোমালিয়ায় জঙ্গিগোষ্ঠী আল-শাবাবের হামলায় কমপক্ষে ২৩ জন নিহত হয়েছে। এদের মধ্যে ১৯ জন বেসামরিক নাগরিক। বাকী চারজন আল-শাবাবের জঙ্গি। রাজধানী মোগাদিসুতে সমুদ্র তীরবর্তী একটি রেস্তোরায় বৃহস্পতিবার এ হামলা চালানো হয়।

শুক্রবার সোমালি পুলিশ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দিররহমান বলেন, ‘ তারা প্রায় ২০ জনকে হত্যা করেছে। এদের মধ্যে নারী ও শিশু রয়েছে।’ এই হামলাকে বর্বর ও নৃশংস বলেও মন্তব্য করেন ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

মোগাদিসুর যে হোটেলটিতে হামলা চালানো হয়েছে তার নাম দ্য লিডো। ব্যবসায়ী ও বিদেশ থেকে আসা সোমালিদের কাছে রেস্টুরেন্টটি ব্যাপক জনপ্রিয়। সোমালিয়ার সাপ্তাহিক ছুটির দিন শুরুর আগে বৃহস্পতিবার নৈশভোজ চলাকালে রেস্টুরেন্টটিতে হামলা চালানো হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী আব্দিররহমান হালানি বলেন, ‘বন্দুকধারীরা লিডো সি ফুড রেস্টুরেন্টের পেছনের দরজা দিয়ে প্রবেশ করে এবং গুলি ছুঁড়তে শুরু করে। কয়েক মিনিট পর লোকজন যখন পালানোর চেষ্টা করছিল তখন সামনের দরজার সামনে প্রচণ্ড বিস্ফোরণের শব্দ পাওয়া যায়।’

পুলিশ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দিররহমান বলেন, ‘ আল-শাবাব কতোটা নৃশংস সেটা প্রমাণের জন্য তারা সাপ্তাহিক ছুটির দিন শুরুর আগের মুহূর্তটিকে বেছে নিয়েছে হামলার জন্য। তারা আরো বেসামরিক নাগরিক হত্যা করতে চেয়েছিল। তবে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা অধিকাংশ লোকদের নিরাপদে সরিয়ে নিতে সক্ষম হয়েছে।’ নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে আল-শাবাবের চার জঙ্গি নিহত হয়েছে। এছাড়া আরো একজনকে আটক করা হয়েছে বলেও জানান আব্দির রহমান।

হামলার পরপর দায় স্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছে আল-কায়েদার সহযোগী সংগঠন আল-শাবাব। এতে বলা হয়, ‘আল্লাহর শত্রুদের বিরুদ্ধে বড় আকারে অভিযান চালাতে মুজাহিদরা লিডো সৈকতকে টার্গেট করেছে।’






মন্তব্য চালু নেই