মেইন ম্যেনু

সোয়া দুই লাখ বিদেশির ‘নিরাপত্তার ব্যবস্থা’ নিচ্ছে সরকার

বাংলাদেশে অবস্থানরত প্রায় সোয়া দুই লাখ বিদেশি নাগরিকের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে তাদের অবস্থান ও কর্মস্থল চিহ্নিত করছে সরকার।

বিদেশি কূটনীতিকদের সামনে বাংলাদেশের পরিস্থিতি তুলে ধরতে প্রেস ব্রিফিংয়ে যাওয়ার আগে মঙ্গলবার  এ তথ্য জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

তিনি বলেন, “এদেশে অবস্থানরত বিদেশিদের নিরাপত্তার ব্যবস্থা সম্পর্কে কূটনীতিকদের জানানো হবে। দেশে অবস্থানরত প্রায় দুই লাখ ২৪ হাজার বিদেশি নাগরিকের জন্য ব্যাপক নিরাপত্তার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে তাদের বাসস্থান ও কর্মস্থল চিহ্নিত করার প্রক্রিয়া চলছে।”

ঢাকার গুলশানে কূটনীতিক এলাকায় বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করার পাশাপাশি গোয়েন্দা কার্যক্রম বাড়ানো হয়েছে বলে জানান মন্ত্রী।

“তাদের যাতায়াতের পথ, বিনোদনের স্থান ও সামাজিক যোগাযোগের অবস্থানে বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা আমরা নিচ্ছি।”

চট্টগ্রামে অস্ত্র ও বিস্ফোরকসহ পাঁচ জেএমবি জঙ্গি গ্রেপ্তারের ঘটনা তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, “জঙ্গি ও সন্ত্রাসীদের ধরতে সারাদেশ অভিযান চলছে। অনলাইনে চলছে জঙ্গি কার্যক্রম মনিটরিং। বিদেশিদের নিরাপত্তা বিধানে ‘স্পেশাল টাস্ক গ্রুপ’ গঠন করা হয়েছে।”

২৮ সেপ্টেম্বর গুলশানের কূটনৈতিক পাড়ায় চেজারে তাভেল্লা নামের এক ইতালীয় এনজিওকর্মীকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এর পাঁচ দিনের মাথায় রংপুরের এক গ্রামে একই কায়দায় খুন হন জাপানি নাগরিক কুনিও হোশি।

দুটি ঘটনার পরই আইএস হত্যার দায় স্বীকার করে বলে খবর দেয় জঙ্গি তৎপরতা পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা ‘সাইট ইন্টিলিজেন্স গ্রুপ’। এই পরিস্থিতিতে হঠাৎ করে বাংলাদেশে জঙ্গি উত্থানের সম্ভাবনা নিয়ে নতুন করে আলোচনা শুরু হয়।

সরকার বলে আসছে, দুই খুনের সঙ্গে আইএস-এর সম্পৃক্ততার কোনো প্রমাণ মেলেনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও বলেছেন, আইএস বা তেমন কোনো জঙ্গি সংগঠনের তৎপরতা বাংলাদেশে নেই।

সরকার বিদেশিদের নিরাপত্তা নিয়ে আশ্বস্ত করলেও যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ বিভিন্ন দেশ তাদের নাগরিকদের বাংলাদেশে চলাফেরায় সতর্কতা জারি করেছে। জাপান, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন দোষীদের বিচারের মুখোমুখি করার আহ্বান জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে।

এই পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার বিকেলে বিদেশি কূটনীতিকদের ‘ব্রিফ’ করতে যাচ্ছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় ওই ব্রিফিংয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কামালও থাকছেন।






মন্তব্য চালু নেই