মেইন ম্যেনু

সৌদিতে নতুন কর প্রস্তাব, প্রবাসীদের মাথায় হাত

সৌদি আরবে কর্মরত প্রবাসীদের মোট আয়ের ওপর ৬ শতাংশ কর আরোপের প্রস্তাব করেছে দেশটির সরকার। আর নতুন করারোপের এ প্রস্তাবে রীতিমতো মাথায় হাত দেওয়ার মতো অবস্থা হয়েছে অভিবাসী শ্রমিকদের।

সৌদি গেজেটের খবর অনুযায়ী, গত বুধবার দেশটির কর মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে একটি প্রস্তাব দেয়। আগামী সপ্তাহে এ প্রস্তাবের ওপর সিদ্ধান্ত হওয়ার কথা রয়েছে।

এদিকে নতুন করারোপের এই প্রস্তাবে উদ্বিগ্ন শ্রমিকরা তাঁদের কঠোর শ্রমে অর্জিত আয়ের ওপর করারোপ না করতে দেশটির সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে দেশটির শ্রমমন্ত্রণালয় এবং বিভিন্ন দেশের দূতাবাসের সামনে মানববন্ধন এবং ক্ষোভ প্রকাশের জন্য জমায়েত হন অভিবাসীরা।

এ ব্যাপারে যুক্তরাজ্যের সংবাদমাধ্যম দ্য ইনডিপেনডেন্টের সৌদি প্রতিনিধির কাছে, জেদ্দায় কর্মরত পাকিস্তানি নাগরিক গাফফার খান বলেন, ‘আমার পরিবার নিয়ে আমি ২১ বছর ধরে সৌদি আরবে থাকি। আমাদের আয় এখানেই ব্যয় করি। কেবল বেতন থেকে অল্প পরিমাণ অর্থ অবসরের দিনগুলোর জন্য সঞ্চয় করেছি। ওই সামান্য সঞ্চয়ের ওপর ৬ শতাংশ করারোপ মানে আমাদের বৃদ্ধ জীবনকে সংকটের দিকে ঠেলে দেওয়া।’

গাফফার খানের মতো ফিলিপাইন, সুদান, বাংলাদেশ, ভারতের অভিবাসীরাও নতুন এই করারোপের প্রস্তাবে ক্ষোভ ও হতাশা প্রকাশ করেছেন।

তবে সৌদি সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, আসছে বছর সবক্ষেত্রেই বেতন বাড়ে সৌদি অভিবাসীদের। আর এই বেতন বাড়ার কারণেই করারোপের বিষয়টি আসছে। তবে শ্রমিকরা জানান, ২০১৫ সালেও এমন কথাই হয়েছিল। কিন্তু ওই সময়ে স্বল্পসংখ্যক অভিবাসী শ্রমিকের বেতন বেড়েছে,  বেশির ভাগ শ্রমিকেরই বেতন বাড়েনি।






মন্তব্য চালু নেই