মেইন ম্যেনু

সৌম্যকে আবিষ্কারের অজানা গল্পটি বললেন হাতুরু

বিশ্বকাপের আগে ২০১৪ এর জিম্বাবুয়ে সফরে ৫ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচে হঠাৎই বাংলাদেশ দলে সুযোগ পান সৌম্য সরকার। নানান আলোচনার পর সুযোগ পেয়ে যান বিশ্বকাপের দলেও। এরপর গড়েছেন ইতিহাস। এক বছরের মধ্যেই পরিণত হয়েছেন বাংলাদেশ দলের সেরা ওয়ানডে ব্যাটসম্যানে।

এই সৌম্য সরকারকে কিভাবে প্রথম আবিষ্কার করেন? ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফোকে সেই গল্পটি নিজের মুখেই বলেন বাংলাদেশ দলের প্রধান কোন হাতুরুসিংহে।

‘আমাদের জন্য সে একজন ম্যাচ উইনারে পরিণত হয়েছে, তাইনা? সে আসলে বিশ্বমানের খেলোয়াড়। এই মাঠেই(মিরপুর) আমি একদিন তাকে মাত্র ১৩ রানের একটি ইনিংস খেলতে দেখেছিলাম। সেটি ছিল একটি অনুশীলন ম্যাচ। তারা(বাংলাদেশ দল) নিজেদের মধ্যে একটা ম্যাচ খেলছিলো আর আমি সৌম্যের ব্যাটিং এর সময় মাঠের পাশ দিয়ে হাঁটছিলাম। তার মাত্র দুটি শট দেখেই আমি কিছু একটা বুঝে নিয়েছিলাম!

মনে পড়ে, পয়েন্ট আর গালি’র মাঝখান দিয়ে সে একটা চার মেরেছিলো। খুব সম্ভবত রুবেল হোসেনের একটা বলে, সে(সৌম্য) শুধু আলতো করে ছোঁয়া দিয়েছিলো, আর সেটি চার হয়ে গিয়েছিলো। একই ম্যাচে সে স্লিপে একটা ক্যাচও নিয়েছিলো। এটুকুতেই আমি বুঝে নিয়েছিলাম আমার দেখা অন্য অনেক খেলোয়াড়ের তুলনায় তার সামর্থ্যের সীমা কতো বেশি অসীম! সেদিন থেকেই আমি নির্বাচকদের কাছে বার বার তার কথা বলে আসছিলাম। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে পুরো সিরিজেই আমি তাকে চেয়েছিলাম। কিন্তু সে শুধু শেষ ম্যাচটিতে সুযোগ পেয়েছিলো!

আমার একটি শক্তির জায়গা হচ্ছে আমি প্রতিভা চিনতে পারি। আমি বুঝতে পারি আমার কাকে বাজিয়ে দেখা উচিত। আমি জানি, কে দলে একটা পরিবর্তন এনে দিতে পারে!’

হাতুরুসিংহে যে আসলেই প্রতিভা চিনতে ভুল করেননি সেটা তো এখন সারা পৃথিবী জানে। তাই, জয় হোক হাতুরুর, জয় হোক সৌম্যের!






মন্তব্য চালু নেই